পলাশবাড়ীতে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রাণ গেল প্রসূতির

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা সদরের পলাশবাড়ী – ঘোড়াঘাট সড়কের গোরস্থান এলাকায় সরকারি হাসপাতালের নার্স ফাতেমার মা- ক্লিনিক এন্ড নার্সিং হোমে গত শুক্রবার (৯ মার্চ) উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের ফরিদপুর (মেরীরহাট) গ্রামের শাহিন মিয়ার স্ত্রী দুই সন্তানের জননী নাজমা বেগমকে সিজার করার জন্য ভর্তি করানো হয়। কিন্তু উক্ত ক্লিনিকের ডাক্তারের ভুল অপারেশনের কারণে নাজমার অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ শুরু হয়ে যায়।
সুচতুর নার্স ফাতেমা এবং ডাক্তার মিলে ঘটনাটি ধামা চাপা দিতে এবং প্রসুতির স্বজনেরা কিছু বুঝে উঠার আগেই আধামরা রোগীকে নিয়ে রংপুরে যেতে বলে। রোগীর স্বজনেরা তড়িঘড়ি করে রংপুরে নেয়ার পথে মাঝ রাস্তায় প্রসূতির মৃত্যু হয়।
এ ব্যাপারে উক্ত মা – ক্লিনিক এন্ড নাসিং হোমে সিজারের সময় উপস্থিত উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ ওয়াজেদ আলির সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি জানান, এর আগে ৩ বার সিজারের কারণে নাচমার রক্তক্ষরণ শুরু হয়। রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে না পারায় তাকে রংপুরে পাঠানো হয়। তবে রোগীর পরিবারসুত্রে জানা যায়, রোগীকে আধা মরা করে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ রংপুরে রেফার্ড করে কিন্ত পথিমধ্যে তার মৃর্ত্যু হয়।
উল্লেখ্য, প্রায়ই ভুল চিকিৎসায় রোগী মারা যাওয়ার খবর পাওয়া যায় উক্ত ক্লিনিকে । এব্যাপারে সংশ্লিস্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের উক্ত ক্লিনিকের ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় নিহত শাহিনের স্ত্রী নাচমার গ্রামের বাড়ীতে গিয়ে সঠিক তদন্ত সাপেক্ষা ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুদৃস্টি কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।