পদত্যাগ করছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ভর্তির প্রক্রিয়ার সঙ্গে একমত হতে না পেরে পদত্যাগ করছেন কলকাতার অন্যতম প্রধান উচ্চশিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস ও প্রো ভিসি প্রদীপ কুমার ঘোষ।

বুধবার রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির সঙ্গে দেখা করে রাজভবনে নিজেদের পদত্যাগ পত্র জমা দেবেন বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাপ্ত ল্যাপটপ ফেরৎ দেন তিনি। এসময় ভিসি সুরঞ্জন দাস বলেন, ‘আমার পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় চালানো সম্ভব হচ্ছে না’।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির প্রক্রিয়া নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই ঝামেলা চলছিলো। তার জেরেই মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়টির কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ভর্তির জন্য ‘ভর্তি পরীক্ষা’ নেয়ার পক্ষে সিদ্ধান্ত হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ৫০ শতাংশ এবং উচ্চমাধ্যমিকে প্রাপ্ত নম্বরের ৫০ শতাংশ নিয়ে তৈরি মেধাতালিকা অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে পারবেন।

তবে এ সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত হতে পারেননি ভিসি এবং প্রো ভিসি। কার্যনির্বাহী কমিটির সভা শেষে ভিসি এবং প্রো ভিসি জানিয়ে দেন, তারা এই সিদ্ধান্তের অংশ নন।

এর আগে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। দফায় দফায় এ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হলেও শেষ পর্যন্ত সমাধান হচ্ছিলো না কিছুতেই। অবশেষে কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।