পটুয়াখালি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে নীল দলের নিরঙ্কুশ জয়

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে (২০১৫-১৬) আওয়ামীপন্থি নীল দলের ২টি প্যানেল (সুলতান-শহিদুল ও হারুন-তৌহিদুল) ১৫টি পদের মধ্যে ১৩টিতে জয়লাভ করেছে।

অন্যদিকে বিএনপি-জামাত সমর্থিত সাদা দল জয়ী হয়েছে ২টি পদে। ভোট গণনা শেষে বুধবার রাতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রফেসর ড. ইফতেখারুল ইসলাম এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

নির্বাচনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন নীল দলের প্রফেসর ড. সুলতান মাহমুদ এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন প্রফেসর ড. শহীদুল ইসলাম। এছাড়াও নীল দলের সুলতান-শহিদুল প্যানেল থেকে নির্বাচিত অন্যান্য সদস্যরা হলেন যুগ্ম-সম্পাদক প্রফেসর ড. শাহ্ আশরাফুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক সহকারী প্রফেসর নাজমুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ সহকারী প্রফেসর ড. নেছার উদ্দীন আহমেদ, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক প্রভাষক রাজু আহমেদ, সদস্য সহকারী প্রফেসর নাসরিন সুলতানা ও প্রফেসর মোঃ শামসুজ্জোহা।

নীল দলের হারুন-তৌহিদুল প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন সহ-সভাপতি সহকারী প্রফেসর ড. মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক সহকারী প্রফেসর শাহীন হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক প্রভাষক নাঈমুর রহমান, সদস্য প্রফেসর মোহাম্মদ আলী ও সহকারী প্রফেসর সন্তোষ কুমার বসু।

নির্বাচনে বিএনপি-জামাত সমর্থিত সাদা দল ২টি পদে জয়লাভ করেছে। সাংস্কৃতিক ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সহকারী প্রফেসর আবুল বাশার খান ও সদস্য সহযোগী প্রফেসর ড. মোঃ আতিকুর রহমান সাদা দল থেকে বিজয়ী হয়েছেন।

জানা গেছে, গত বুধবার কৃষি অনুষদের সেমিনার কক্ষে স্থাপিত বুথে ভোট গ্রহন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে। নির্বাচনে ১৮২ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করে। শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে আওয়ামীপন্থি নীল দল ২টি প্যানেলে (হারুন-তৌহিদুল পরিষদ, সুলতান-শহীদুল পরিষদ) বিভক্ত হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

Leave a Reply