নীলফামারী চলছে ৭ দিনের বৃক্ষ মেলা

নীলফামারী, ১৭ জুলাই, ২০১৮ : জেলায় শুরু হয়েছে ৭ দিনের বনজ, ফলদ ও ভেষজ বৃক্ষ মেলা। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় নীলফামারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মেলার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।
আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অনেক সাফল্য এবং অর্জন রয়েছে। একটি সরকার দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকলে দেশের যে উন্নয়ন হয় এটি তারই প্রমাণ।’
গাছ লাগানোর প্রয়োজনীয়তার কথায় তিনি বলেন,‘উত্তর বঙ্গের মানুষ এক সময়ে গাছ লাগানোর প্রয়োজনীয়তা হারে হারে টের পেয়েছেন। এ অঞ্চলে অনেক খড়া হতো, মানুষ তাকিয়ে থাকতেন বৃষ্টির জন্য। খড়ার মূল কারণ গাছ কাটা, যে হারে গাছ কাটা হতো সেহারে গাছ লাগানো হতো না। আজকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উত্তরাঞ্চলসহ গোটা দেশ সবুজ হয়েছে। আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের সহযোগিতায় মানুষের বাড়িতে গাছের চারা লাগানো হয়েছে। শহর থেকে গ্রামাঞ্চল পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। প্রধানমন্ত্রী এখন মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের স্বরণে ৩০ লাখ গাছ লাগানোর কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। ওই কর্মসূচিতে নীলফামারী জেলায় ৫০ হাজার গাছ লাগানো হবে।
জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা সামাজিক বন বিভাগ ও কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম। এ সময় অন্যানের মধ্যে বক্তৃতা দেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আবুল কাশেম আযাদ, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক, রংপুর বিভাগের সামাজিক বন কর্মকর্তা মো. রফিকুজ্জামান শাহ্, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মসফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মহসীন রেজা রূপম।
মেলায় বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারার ৫০টি স্টল স্থান পেয়েছে বলে আয়োজকরা জানান।