নীলফামারীতে বোরো চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ১৫ হাজার ৭৯৬ মেট্রিক টন

নীলফামারী, ১২ মে, ২০১৮ : জেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ১৫ হাজার ৭৯৬ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহ করবে খাদ্য বিভাগ। ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে দপ্তরটি।
ওই লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে রয়েছে নীলফামারী সদর উপজেলায় ৬ হাজার ৪৬৭ মেট্রিকটন, সৈয়দপুর উপজেলায় ১ হাজার ৮৭৬ মেট্রিকটন, ডোমার উপজেলায় ২ হাজার ১৫৮ মেট্রিকটন, জলঢাকায় ৩ হাজার ৪৭৯ মেট্রিক টন, ডিমলায় ১ হাজার ৫৪০ মেট্রিক টন ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ২৭৬ মেট্রিকটন।
জেলা খাদ্য বিভাগের সূত্রমতে, মে মাস থেকে শুরু করে ৩১ আগষ্ট পর্যন্ত সংগ্রহের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। চাল সরবরাহ করবেন জেলার ৬০৪ জন চালকল মালিক। ওই ৬০৪ জনের মধ্যে রয়েছেন নীলফামারী সদরে ১৫৭ জন, সৈয়দপুরে ২৩ জন, ডোমারে ১৩৯ জন, জলঢাকায় ১৫০ জন, ডিমলায় ১১৯ জন এবং কিশোরগঞ্জে ১৬ জন।
জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাজী সাইফুদ্দিন অভি জানান, ৩৮ টাকা কেজি দরে মিল মালিকদের কাছ থেকে সিদ্ধ চাল সংগ্রহ করা হবে। দ্রুতই সংগ্রহ অভিযান শুরু হবে।
এদিকে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপপরিচালক আবুল কাশেম আযাদ জানান, জেলার ছয় উপজেলায় এবারে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৮৪ হাজার ২৭৯ হেক্টর জমিতে। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৩৫৮ মেট্রিকটন চাল। লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে বোরো আবাদ হয়েছে ৮৪ হাজার ৩৬০ হেক্টর জমিতে। ইতিমধ্যে ধান কাটামাড়াই শুরু হয়েছে। বাম্পার ফলনে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে।