নির্যাতনের অভিযোগে নির্বাহী পরিচালক ও তার ছেলেসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ঝিনাইদহ সংবাদদাতা : অপহরণ করে ১৩ দিন আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগে ঝিনাইদহের সৃজনী এনজিওর নির্বাহী পরিচালক ড. হারুন অর রশিদ ও তার ছেলে তামিমসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মালয়েশিয়া ভিত্তিক মেডিকো গ্রুপের এরিয়া ম্যানেজার ও মহেশপুর উপজেলার গৌরিনাথপুর গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আরিফ হুসাইন বাদী হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলাটি করেন যার মামলা নং ২১।

শুক্রবার (৭ সেপ্টম্বর) মধ্যরাতে মামলাটি রেকর্ড করা হয়েছে।

আসামী ড. হারুন অর রশিদ ও তার ছেলে তামিম পলাতক রয়েছে। এই মামলায় সৃজনীর নির্বাহী পরিচালক হারুনের চাচাতো ভাই লাভলু ও কর্মচারী ওহিদুজ্জামানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ মামলা রেকর্ডের কথা স্বীকার করে জানান, ‘অপহরণের ১৩ দিন পর আরিফ হুসাইন (২৯) নামে এক যুবককে পবহাটী গ্রামের একটি টর্চার সেল থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। বাদীর অভিযোগ গত ২৬ আগষ্ট ঝিনাইদহ শহরের পায়রা চত্বর থেকে সৃজনী এনজিওর নির্বাহী পরিচালক হারুন অর রশিদের নির্দেশে তার ছেলে তামিম তাকে কিডন্যাপ করে নিয়ে যায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘সেই থেকে আরিফ পবহাটী গ্রামে সৃজনীর হেড অফিসে ৯দিন ও হারুনের বাগান বাড়িতে ৪ দিন আটক ছিলেন। তবে সৃজনীর নির্বাহী পরিচালক ড. হারুন অর রশিদ ঘটনার পর থেকেই বলে আসছেন আরিফকে আটকে রেখে মারধর বা কোন নির্যাতন করা হয়নি। লেনদেনের ঝামেলা মেটাতে সৃজনীর হেড অফিসেই ছিলেন আরিফ।’