নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বিশেষ সংবাদদাতা : আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখবেন। কেউ যেন বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য সবাই সতর্ক থাকবেন। ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে সবাই ভোট কেন্দ্রে যাবেন এবং ভোট দেবেন।

বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর ধানমন্ডিতে তার বাসভবন সুধাসদন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নওগাঁয় নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দেয়ার সময় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি নওগাঁর প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা দলের পক্ষ থেকে ইশতেহার ঘোষণা করেছি। এ ইশতেহারে পরিষ্কার বলা হয়েছে আমাদের পরিকল্পনা। নওগাঁ এক সময় সন্ত্রাসী, জঙ্গি ও বাংলা ভাইয়ের ঘাঁটি ছিল। এদের কারণে জেলার মানুষ স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারেনি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় আসার পর সেগুলো বন্ধ করেছি। সন্ত্রাসী, জঙ্গি ও বাংলা ভাইয়ের ঘাঁটি বন্ধ করেছি। নওগাঁর আত্রাই নদী খনন করেছি। নওগাঁ কৃষি সমৃদ্ধ অঞ্চল। এ এলাকার কৃষকদের ঋণ, কৃষি যন্ত্রপাতি, ভর্তুকিসহ রাস্তা ঘাটের ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। নওগাঁ জেলার কী কী উন্নয়ন করেছি সে বিষয়ে যে ভিডিও এ অনুষ্ঠানে উপস্থাপন করা হলো তা নওগাঁর প্রতিটি এলাকায় দেখালে ভোট চাওয়া সহজ হবে। উন্নয়নের এ চিত্র দেখলে জনগণ অবশ্যই ভোট দেবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যে পুলিশ জঙ্গি দমন করেছে, বাংলা ভাই দমন করেছে। যে পুলিশ ড. কামাল ও আমাদের নিরাপত্তায় দিনরাত কাজ করে সেই পুলিশকে বাজে ভাষায় গালি দেয়া মোটেই উচিত হয়নি। যে কোনো মুহূর্তে নিরাপত্তার জন্য ড. কামাল হোসেনের পুলিশ প্রয়োজন হতে পারে।’

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা কারও কোনো বক্তব্যে বা উসকানিতে ধৈর্য হারাবেন না। ধৈর্য ধরে মাথা ঠান্ডা রেখে কাজ করবেন। বিএনপি-জামায়াত যেন আর ক্ষমতায় না আসতে না পারে সে জন্য জনগণকে বুঝাতে হবে। তারা ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের জন্য কী করেছে তা তুলে ধরবেন। ৭১-এ তাদের ভূমিকা কী ছিল তা সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরবেন। তাদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। সাধারণ জনগণকে যদি বুঝাতে পারেন তাহলে নৌকায় ভোট দিয়ে আবার আমাদের ক্ষমতায় বসাবে।’

প্রধানমন্ত্রী নওগাঁর সব প্রার্থীকে পরিচয় করিয়ে দিয়ে বলেন, ‘আপনারা তাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে সংসদে পাঠাবেন। আমরা আপনাদের এলাকায় উন্নয়ন করবো।’