নারী উন্নয়নই দেশের উন্নয়ন : তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নারীদের পর্যাপ্ত উদ্যোগই পারে দেশের অর্থনীতিকে অভীষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছাতে। এ কারণে সমাজ ও দেশকে এগিয়ে নিতে প্রতিষ্ঠিতদের পাশাপাশি নারী সমাজের সকলকেই এগিয়ে আসতে হবে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (বিডব্লিউসিসিআই) আয়োজিত ‘প্রোগ্রেসিভ এওয়ার্ড ২০১৫ ও ২০১৬’ প্রদান অনুষ্ঠানে মন্ত্রী একথা বলেন।
বিডব্লিউসিসিআই প্রেসিডেন্ট সেলিমা আহমদের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন। সম্মানীত অতিথি ছিলেন ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস-উল আলম এবং এবিসি রিয়েল এস্টেটস লিমিটেডের পরিচালক সাবিনা আলম।
নারীর উন্নয়নের অর্থ দেশের উন্নয়ন’ উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে অভূতপূর্ব নারী ক্ষমতায়ন ঘটছে। শিক্ষা, চিকিৎসা, শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকুরিসহ সকল পেশায় এগিয়ে আসছে আমাদের নারীরা’।
তিনি বলেন, মনে রাখতে হবে সকল ক্ষেত্রে নারী ও পুরুষের সমঅধিকার নিশ্চিত করার মধ্যেই দেশের সত্যিকার উন্নয়ন নিহিত।
মন্ত্রী এ সময় দেশের ৮টি বিভাগের সেরা ৮ জন নারী উদ্যোক্তা এবং প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমের দু’জন প্রতিনিধির হাতে ‘বিডব্লিউসিসিআই’ প্রোগ্রেসিভ এওয়ার্ড তুলে দেন।
পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন- সাবিরা ইয়াসমিন, মিনারা বেগম, সাবা নওরিন পলি, সুরাইয়া পারভীন, জিনিয়া হাসনাত জুঁই, হাসনারা বেগম সুচী, সুফিয়া ইকবাল খান, আইনুন শামীমা আক্তার দোলা এবং একাত্তর টেলিভিশনের শামীমা আক্তার দোলা ও দৈনিক প্রথমআলোর সানাউল্লাহ সাবিক তনু।

Inline
Inline