নবম ওয়েজবোর্ড : সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে তথ্যমন্ত্রীর বৈঠক

নিজস্ব প্রতিবেদক : সাংবাদিকদের নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশ বাস্তবায়নে মন্ত্রিসভা কমিটির সঙ্গে বৈঠকের আগে সাংবাদিক নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে নবম ওয়েজবোর্ড নিয়ে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজ পেপার প্রেস ওয়ার্কার্সের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে বৈঠক করেন মন্ত্রী।

তবে সংবাদপত্র মালিক সমিতির সংগঠন নিউজ পেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব) এর নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হলেও তারা বৈঠকে আসেননি।

সভার শুরুতে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নতুন সরকার গঠন হওয়ার পর আমরা কাজ শুরু করেছি। নতুন করে সাত সদস্যের মন্ত্রিসভা কমিটি করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা বক্তব্য শুনব। এই বৈঠকের পর মন্ত্রিসভা কমিটি গঠনের গেজেট হওয়ার পর বৈঠক আহ্বান করব। এই বৈঠকে আলোচ্য বিষয় ও সারসংক্ষেপ মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে উপস্থাপন করব। তারপর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নবম ওয়েজবোর্ডের মাধ্যমে সংবাদপত্রে যারা কাজ করেন তাদের বেতন-ভাতা যাতে নিশ্চিত হয় সেই লক্ষ্যে কাজটি দ্রুত শুরু করেছি। আজকের বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হবে।’

নবম ওয়েজবোর্ড নিয়ে সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে যেসব দাবি-দাওয়া এসেছে এবং এই ওয়েজবার্ডে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া অন্তর্ভুক্তের বিষয়ে আলোচনা করা হবে বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি ইলিয়াস হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খানকে সভায় অংশ নিতে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। যথাসময়ে সভাস্থলে এসে উপস্থিতও হন তারা। কিন্তু সভা শুরুর কিছুক্ষণ আগে সভাকক্ষ থেকে বেরিয়ে যান।

এ বিষয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে বলেন, তথ্যমন্ত্রী চেয়েছিলেন রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতারা থাকুক কিন্তু বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের নেতারা আপত্তি জানানোয় বৈঠকে তাদের রাখা হয়নি।

বৈঠকে বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালাল ও সাধারণ সম্পাদক শাবান মাহমুদ, ডিইউজের সভাপতি আবু জাফর সূর্য ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।