ধাপেরহাটের গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ: ঘাতক স্বামী পলাতক

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা সংবাদদাতা : ঢাকায় বসবাসকারী গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুরে নাজজিন আকতার(২৮) নামে এক গৃহবধূকে পাষণ্ড স্বামী সেলিম সরকার শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
নিহত গৃহবধূ উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নের হাসানপাড়া গ্রামের মংলু প্রামানিকের মেয়ে ও একই উপজেলার পাতিলাকুড়া গ্রামের সেলিম সরকারের স্ত্রী। ঘাতক সেলিম সরকার সাদুল্যাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের পাতিলা কুড়া গ্রামের জমির উদ্দিন সরকারের ছেলে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রায় ১২ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের ২টি সন্তান আছে। ঢাকায় আইসিবি ব্যাংকের সাবসিডিয়ারি কোম্পানী আইসিবি এসেট ম্যানেজমেন্ট কোং লি: এর, অফিস সহায়ক সেলিম সরকার চাকরির সূত্রে ঢাকা মুগদা থানার মান্দা এলাকায় তার ভগ্নিপতি আইসিবি ব্যাংকের অব: সিনিয়র প্রিন্সিপল অফিসার এটিএম শামসুদ্দিন(তাহের) এর বাসায় (৪৪১ দক্ষিণ মান্দা ১নং পানির টাংকির পার্শ্বে) পরিবার নিয়ে বসবাস করত। গত সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে সেলিম সরকার তার স্ত্রীর বাড়ির কাউকে না জানিয়েই ঢাকা থেকে তার স্ত্রীর লাশ গ্রামের বাড়ী পাতিলাকুড়া গ্রামে নিয়ে আসে এবং শ্বশুর বাড়ীর কাউকে না জানিয়ে দাফনের ব্যবস্থা করে।
এসময় গৃহবধূর বাড়ীর লোকজন সংবাদ পেলে ঘটনাস্থলে লাশ দাফনে বাধা দিয়ে পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ রাত ২টার দিকে লাশ উদ্ধার করে মঙ্গলবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠান।
সাদুল্যাপুর থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এ এস আই) আলতাফ হোসেন সাংবাদিকদের জানান, নিহত গৃহবধূর মরদেহের গলার নিচে আঘাতের চিহ্ন ছিল।
সাদুল্যাপুর থানার ওসি বোরহান উদ্দীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, নিহত গৃহবধূর নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় পুলিশ তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।