দ. কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্টের ২৪ বছর কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ক্ষমতার অপব্যবহার এবং অনৈতিক প্রভাব খাটানোর অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন-হাইকে ২৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার পার্কের এই রায় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। দুর্নীতির ঘটনায় এমন শাস্তি দেশটিতে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ীদের ওপর জনগণের তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

আদালত কারাদণ্ডের পাশাপাশি এক কোটি ৭০ লাখ ডলার জরিমানাও করেছে। এই রায়ের সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন পার্ক জিউন-হাই।

রায়ে আদালত বলেছে, ঘনিষ্ঠ বান্ধবী চোই সুন-সিলের সঙ্গে যোগসাজশে পার্ক স্যামসাং ও লোটের মত কোম্পানিকে অবৈধ সুবিধা দিয়ে ৭৭.৪ বিলিয়ন উয়ন নিয়েছেন এবং ওই অর্থে চইয়ের নামে দুটি দাতব্য সংস্থা গড়ে তুলেছেন বলে প্রমাণিত হয়েছে।

বিচারক কিম সে উন তার পর্যবেক্ষণে বলেন, আসামি পার্ক ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিভিন্ন কোম্পানিতে ওই দাতব্য প্রতিষ্ঠানে অর্থ দিতে বাধ্য করেছেন।

আদালতের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে পার্ক এই মামলার শুনানি প্রথম থেকেই বর্জন করেছেন। তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

এই রায় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা দক্ষিণ কোরিয়ার ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা। এই মামলা ব্যাপক জনস্বার্থের সঙ্গে জড়িত বিধায় সরাসরি প্রচার করা হয়েছে বলে দেশটির কর্তৃপক্ষ বলেছে।

পার্ক জিউন হাই দক্ষিণ কোরিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট। সাবেক সামরিক কর্মকর্তা ও প্রেসিডেন্ট পার্ক চুং–হির মেয়ে।