দ্রুতই সংসার ভাঙে যেসব বলি তারকার

বিনোদন ডেস্ক : তড়িঘড়ি প্রেম, সাত তাড়াতাড়ি বিয়ে। তার থেকেও তাড়াতাড়ি বিচ্ছেদ। একটা সময়ে বলিউড তারকাদের প্রতিদিনকার কাহিনি হয়ে উঠেছিল এটা। তেমনই কিছু তারকাদের বিয়ের কাহিনিতে নজর থাকবে, যাদের বিয়ের মতো বিচ্ছেদও হয়েছিল চটজলদি।

রেখা: একটা সময় বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে রেখার সম্পর্কের খবর ছড়ানো ছিল বলিউডের অলিগলিতে। বলিউডে কান পাতলেই যে গুঞ্জনের খবর এখনও শোনা যায়। সেই গুঞ্জনের মধ্যেই মুকেশ অগ্রবাল নামে দিল্লির এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন রেখা। কিন্তু বেশিদিন টেকেনি। সংসার গড়ার এক বছরের মাথায় আত্মহত্যা করেন রেখার স্বামী মুকেশ।

মনিষা কৈরালা: নব্বইয়ের দশকে রূপালী পর্দা মাতিয়েছেন মিষ্টি হাসির নায়িকা মনিষা কৈরালা। কাজ করেছেন শাহরুখ খান, আমির খান ও সানি দেওলদের সঙ্গে। ২০১০ সালে তিনি হুট করেই বিয়ে করেন নেপালি ব্যবসায়ী সম্রাট দহলকে। ২০১২ সালে মাত্র দুই বছরের মধ্যেই ডিভোর্স হয়ে যায় তাদের। ফেসবুকে মনীষা একবার লিখেছিলেন, স্বামীর থেকে বড় শত্রু তার আর কেউ নেই।

মল্লিকা শেরাওয়াত: তিনি যে বিবাহিত এটা অনেক ভক্তেরই অজানা। বিয়ের কথা কখনও জনসমক্ষে আনেননি মল্লিকা। অভিনয় জগতে পা রাখার আগেই ২০০০ সালে বিমানচালক করণ সিং গিলকে বিয়ে করেছিলেন খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ে পটু এ নায়িকা। সিনেমায় নিজের ক্যারিয়ার গড়বেন বলে পরিবারকে সময় দিতে পারবেন না। এমন কারণ দেখিয়ে বিয়ের এক বছরের মধ্যেই করণকে ডিভোর্স দেন মল্লিকা।

করণ সিং গ্রোভার: বিয়ের এক বছরের মাথায় সাবেক স্ত্রী শ্রদ্ধা নিগমের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় অভিনেতা করণ সিংহ গ্রোভারের। তার পরে করণ বিয়ে করেন জেনিফার উইঞ্জেটকে। টেকেনি সে সংসারও। জেনিফারের সঙ্গেও দুই বছর পরে ডিভোর্স হয়ে যায় করণের। পরে তিনি বিয়ে করেন বলিউডের হট সেনসেশন বিপাশা বসুকে। বিপাশাকে নিয়েই বর্তমানে সংসার করছেন এই তারকা।

পুলকিত সম্রাট: শ্বেতা রোহিরা নামের একজনকে বিয়ে করেছিলেন অভিনেতা পুলকিত সম্রাট। কিন্তু বেশিদিন টেকেনি এই উঠতি তারকার বিয়েও। এক বছরের মাথায় ডিভোর্স হয়ে যায় সম্রাট ও শ্বেতার। তার পরেই রটনা রটে ঋত্বিক রোশনের ‘কাবিল’ ছবির নায়িকা ইয়ামি গৌতমের সঙ্গে প্রেম করছেন সম্রাট।

সারা ও আলি: বলিউড ভাইজান সালমান খানের সঞ্চালিত জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো বিগ বস হাউসের ভেতরেই বিয়ে করেছিলেন টেলি তারকা সারা খান এবং আলি মার্চেন্ট। মাত্র দুই মাস টিকেছিল সেই বিয়ে। বিবাহবিচ্ছেদের পর আলি বলেছিলেন, ‘এটা ছিল আমার জীবনের একটা ভুল সিদ্ধান্ত।’

Inline
Inline