দ্বিতীয় দিনে নায়ক রিয়াদ, বাংলাদেশ ৫১৩

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আজ সকালের হিরো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দ্বিতীয় দিনে সকাল থেকেই স্পিনাররা টার্ন পেতে থাকেন। হেরাথদের স্পিনে কাবু তখন ব্যাটসম্যানরা। তবে রিয়াদ ছিলেন অন্যরকম। প্রথমে পরিস্থিতি বুঝে, দেশেশুনে ব্যাট করলেন। এরপর হাত খুলে ব্যাট চালিয়ে দ্রুত রান বাড়িয়ে নিলেন লড়াকু রিয়াদ। আর তাতে রান পাহাড়ে চড়লো স্বাগতিকরা।

মুমিনুলের ১৭৬, মুশফিকের ৯২ ও রিয়াদের অপরাজিত ৮৩ রানের দারুণ ইনিংসে ভর করে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ তুলে ফেললো ৫১৩ রান। ১৩৪ বলে ৮৩ রান করে অপরাজিত থাকেন রিয়াদ।

চার উইকেটে ৩৭৪ নিয়ে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছিল বাংলাদেশ। আজ দ্বিতীয় দিনে ৭ উইকেটে ৪৬৭ রান নিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা। লাঞ্চ বিরতির পর প্রথমে তাইজুল ও পরে মোস্তাফিজকে সঙ্গে নিয়ে তরতর করে রান তুলেন রিয়াদ।

সকালে দ্রুত তিন উইকেট পড়ার পর বড় স্কোর নিয়ে যে শঙ্কা দেখা দিয়েছিল, তা কাটিয়ে ওঠে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দারুণ ব্যাটিংয়েই। সানজামুলকে সঙ্গে নিয়ে ৫৮ রান যোগ করেন তিনি। সানজামুল আউট হন ২৪ রানে। তার আাগে মিরাজকে নিয়ে রিয়াদ যোগ করেন ২৭। এরপর রিয়াদকে সঙ্গ দেন মোস্তাফিজ। শেষ ব্যাটসম্যান মোস্তাফিজ যেভাবে সঙ্গ দেন তা দারুণ প্রশংসার দাবি রাখে। ২১ বলে ৮ রান করেন মোস্তাফিজ। শেষ জুটিতে আসে ৩৬ রান।

সকালে আগের দিনের সঙ্গে মাত্র ১ রান যোগ করে, মানে ১৭৬ রানে ফিরেন যান মুমিনুল। মুমিনুলের পরই ফিরে যান মোসাদ্দেক হোসেন। এরপর ২০ রান করে রান আউট হয়ে যান মিরাজ।

গতকাল উইকেট না পেলেও আজ সকালে স্বরূপে স্পিনার রঙ্গণা হেরাথ। মুমিনুলের পর মোসাদ্দেকও ফিরেছেন তাঁর বলে। ১৫ বলে ৮ রান করেন মোসাদ্দেক। ১ রানে তাইজুলকেও বিদায় করেন হেরাথ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৫১৩/১০ (১২৯.৪ ওভার)

(তামিম ইকবাল ৫২, ইমরুল কায়েস ৪০, মুমিনুল হক ১৭৬, মুশফিকুর রহিম ৯২, লিটন দাস ০, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৮৩* মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৮, মিরাজ ২০, সানজামুল ২৪, তাইজুল ইসলাম ১, মোস্তাফিজুর রহমান ৮; সুরঙ্গা লাকমল ৩/৬৮, রঙ্গনা হেরাথ ৩/১৫০, লাহিরু কুমারা ১/৭৯, দিলরুয়ান পেরেরা ১/১১২, লক্ষণ সান্দাকান ২/৯২, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ০/১২)।

Inline
Inline