দামুড়হুদায় গাঁজা ব্যবসায়ীর ৬ মাসের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত

হাবিবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় রিপন (৪০) নামের এক গাঁজা ব্যবসায়ীকে ৬ মাসের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। রিপন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বালিয়কান্দি গ্রামের মরিরুদ্দীনের ছেলে।
সোমবার বিকালে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিট্রেট রফিকুল হাসান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এই আদেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকাল ৪টার দিকে দামুড়হুদার সুলতানপুর বিওপির হাবিলদার আকরম হোসেন ঝাঁঝাডাঙ্গা গ্রামের ভিতর দিয়ে মাদকদ্রব্য আসছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঐ গ্রামে ওৎ পেতে থাকে। এসময় ঝাঁঝাঁডাঙ্গা গ্রামের সম্রাটের বাড়ীর নিকটে একটি পাখি ভ্যানের গতিরোধ করে। তখন পাখি ভ্যানে থাকা ঝাঁঝাঁডাঙ্গা গ্রামের মুন্নাফ এর ছেলে সম্রাট ও বালীয়াকান্দি গ্রামের মৃত তোবাই সরকারের ছেলে লিয়াকত পালিয়ে যায়। বিজিবি- ৬ রিপন কে পাখি ভ্যানসহ আটক করে। পরে রিপনের দেহতল্লাশি করে কিছুনা পেয়ে পরে পাখি ভ্যানের ব্যাটারির সাইডে রাখা পলিথিনে মোড়ানো ৪টি প্যাকেটে ১ কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার করে।
এসময় বিজিবি- ৬ দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে সংবাদ দিলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিট্রেট রফিকুল হাসান ঘটনাস্থলে উপস্থিত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে রিপন কে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৯৯০ এর ১৯ (১) টেবিলের ৭ (ক) ধারায় ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ দেন। আদালতে সহায়তা করেন, উপজেলা আইসিটি টেকনিশিয়ান খাইরুল কবির দিনার ও অফিস সহায়ক রফিকুল ইসলাম।