তালায় রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় আম পাকিয়ে বাজারজাত করছে অসাধু ব্যাবসায়ীরা

এসএম বাচ্চু, তালা(সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : চলতি মৌসুমে তালা উপজেলার আম ব্যাবসায়ীরা অধিক মুনাফার আশায় অপরিপক্ক আম পেড়ে রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় পাকিয়ে বাজারজাত করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। একমাত্র গোপালভোগ আম ব্যতিত অন্যান্য প্রজাতির আম এখনও পাঁকার মতো পরিপক্ক না হলেও ইথ্রিন নামক কেমিক্যাল ও কারবাইডের মাধ্যমে অপরিপক্ক আম পাঁকিয়ে ঢাকা, চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করছেন এক শ্রেনীর অসাধু ব্যাবসায়ী। ফলে আমের সাথে ক্ষতিকর রাসায়নিক কেমিক্যাল মানব দেহে প্রবেশ করে সুস্থ্য মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হলেও এসকল অনৈতিক কার্যক্রম তদারকিতে কোন প্রশাসনিক নজরদারি নেই বললেই চলে।
সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ২৫ বৈশাখের পরে আমপাড়া শুরু করার কথা থাকলেও আবহাওয়া ও জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে নির্দ্দিষ্ট ওই সময়ে একমাত্র গোপালভোগ আম ছাড়া অন্যান্য প্রজাতির আম পরিপক্ক হতে এখন আরো বেশী সময় লাগে। কিন্ত বাস্তবসম্মত পরিস্থিতি বিবেচনায় না এনে গোপালভোগ আমের সাথে অন্যান্য প্রজাতির অপরিপক্ক আমও পাড়া হচ্ছে ইচ্ছেমতো। এবিষয়ে স্থানীয় কয়েকজন আম ব্যাবসায়ীর সাথে কথা বললে তারা বলেন, আমরা সরকারি অনুমতি সাপেক্ষে আম পেড়ে বাজারজাত করছি। কিন্ত সংশ্লিষ্ট বিভাগ বলছে ভিন্ন কথা। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামছুল আলম বলেন, আম পাড়ার বিষয়ে প্রতিবছর সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সভা আহবান করে অনুমতি দেয়া হয়। কিন্ত এবছর এখনও অনুমতি দেয়া হয়নি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফরিদ হোসেন বলেন, চলতি বছর এখনও আম পাড়ার অনুমতি দেয়া হয়নি। খাদ্য দ্রব্যের সাথে বিষ মেশালে সেই ব্যাবসায়ীর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।