তালায় দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগে গরীব মানুষের চাকুরী অনিশ্চিত

এস এম হাসান আলী বাচ্চু,তালা (সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি: মেধা থাক, আর নাই থাক, টাকা বেশীতো চাকুরী” । এই বিষয়টিকে গুরত্ব দিয়ে তালায় ৮৩টি স্কুলে দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ নিয়ে চলছে নিয়োগ বানিজ্যের মহা উৎসব । চাকুরী পেতে ৬লক্ষ টাকা হতে শুরু করে ১০লক্ষ টাকা পর্যন্ত গুনতে হতে পারে চাকুরী প্রাপ্তিদের । এ নিয়ে চারিদিকে চলছে গুঞ্জন। গরীব মানুষের চাকুরী অনিশ্চিত ।
তালায় গত ৩০ নভেম্বর ২০১৭ তারিখ স্বারক নং ০৫.৪৪.৮৭৯০.০০০.৩২.০১০.১৭-১৯২২ এর আদেশে, উপজেলা পর্যায়ে দপ্তরী কাম প্রহরী বাছাই ও নিয়োগ কমিটি গঠন সংক্রান্ত বিষয়ে ৮৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অনুকুলে দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ করা মর্মে একটি চিঠি জারি করা হয় ।
তথ্যনুসন্ধানে জানা যায় , তালা উপজেলায় ৮৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ করা হবে। ৩০ নভেম্বর হতে ১৭ ডিসেম্বর তারিখ বিকাল ৫.০০ ঘটিকার মধ্যে সভাপতি উপজেলা দপ্তরী কাম প্রহরী যাচাই বাছাই কমিটি তালা,সাতক্ষীরা বরাবর আবেদন করতে হবে । এ দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগে দিতে এক শ্রেনীর অর্থলোভী ব্যক্তিরা মেতে উঠেছে । এই জন্য তারা বিভিন্ন কর্মকর্তাদের ও মহলের উচ্চ পর্যায়ের রাজনৈতিক ব্যক্তিদের ম্যানেজ করে আবেদনকারীদের চাকুরী পাইয়ে দিতে ৭লক্ষ টাকা হতে শুরুকরে ১০লক্ষ টাকা পর্যন্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে । এ দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ বানিজ্যে সরকারী কর্মকর্তা,কর্মচারী রাজনৈতিক নেতা,স্কুলের প্রধান শিক্ষক,স্কুলের ম্যানিজিং কমিটির সভাপতি,শিক্ষা অফিসের লোকজন জড়িত হচ্ছে বলে জানা যাচ্ছে । দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগে এই চাকুরী পেতে টাকা যোগাড় করতে অনেকেই নিজের গরু,ছাগল,ফসলের জমি থেকে শুরুকরে বাস্তব ভিটা পর্যন্ত বিক্রি করতে হচ্ছে । তবুও চাকুরী হবে কিনা সেটা বলার কোন উপায় নাই । কেননা অফেরত যোগ্য ২শত টাকার ব্যাংক ড্রাফের মাধ্যমে আবেদন জমা দেয়া হবে । এর পরে একই স্কুলের পিয়ন পদে কতজন আবেদন করবে তার কোন ঠিকনাই । তাহাছাড়া একটি চাকুরী আবেদন বেশী পড়লে টাকার অংক বেড়ে যাবে । প্রতিযোগিতায় যে বেশী টাকা দিতে পারবে সে চাকুরী পেতে পারে । গরীব মেধাবী কোন মানুষের চাকরী হওয়ার কোন সম্ভবনা নাই বললেই চলে । চাকুরীর আবেদন প্রাপ্তির পর সর্বশেষ ৩জনকে বাছায় করা হবে ১ম,২য় এবং ৩য় এর ভিতর ১জনকে নিয়োগ দেয়া হবে । তবে কার নামের পার্শে টিক পড়বে সেটা একমাত্র আল্লাহ জানেন ।
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ এর আবেদনকারী বলেন,ভাই আমরা আবেদন করেছি কিন্ত চাকুরীটা বোধ হয় হবে না । আমার টাকা যোগার করার কোন উপায় নাই । আমরা গরীব মানুষ । পিয়নের চাকুরীটাও আমাদের ভাগ্যে নেই । আসলে গরীব ঘরে জন্ম নিয়েছি এটাই আমার অপরাধ । এ বিষয়ে আবেদনকারী ও সুশিল সমাজের ব্যক্তি বর্গের আবেদন । দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগ যেন কোন অর্থ বানিজ্য না হয় এবং সুষ্টু তদন্ত সাপেক্ষে সঠিক মেধা যাচাই পূর্বক যাতে নিয়োগ দেয়া হয় । সেই জন্য উচ্চ মহলসহ মাননীয় প্রধান মন্ত্রির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ।
এ ব্যাপারে তালা উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ অহিদুল ইসলাম বলেন,নিয়ম নীতি মেনে নিয়োগ দেয়া হবে । কোন অনিয়ম করলে তার বিরুদ্ধে আইনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।
এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার বলেন,আমি চাই সঠিকভাবে নিয়োগ হোক । যে পরীক্ষায় ভাল ফলাফল করবে সেই যেন চাকুরী পায় ।