তালায় কিশোরীকে ধর্ষণ

তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। দুপুরে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানায় ওই কিশোরীর বাবা বাদি হয়ে ধর্ষক শাহীনের নামে এ মামলাটি দায়ের করেন।
অভিযোগে বলা হয়েছে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টার দিকে ওই কিশোরী তার দাদীর সাথে বিলে ছাগল আনতে যায়। এ সময় তার দাদী তাকে ছাগলগুলো খুঁজে আনতে বলে তিনি চলে আসে।
এই সুযোগে পাটকেলঘাটার পুটিয়াখালী গ্রামের মুজিবর রহমানের ছেলে শেখ শাহীন (২২) ওই কিশোরীর গলায় গামছা পেচিয়ে পার্শ্ববর্তী কলা বাগানে নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসে।
পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে কামরুল শেখ ও সামাদ শেখ নির্যাতিত কিশোরীর বাবাকে মীমাংসার প্রস্তাাব দিয়ে থানা-পুলিশ করতে নিষেধ করেন এবং ধর্ষকের সাথে তার বিয়ে দিয়ে দেবেন বলে চাপ দেন। এ নিয়ে স্থানীয় বাদল, আনছার, শহীদুল, কাদেরসহ অন্যান্যদের নিয়ে শালিসও বসে। কিন্তু ধর্ষক শাহীনকে হাজির করতে না পারায় শালিসদাররা দায়িত্ব নিতে অপারগতা প্রকাশ করেন।
কোন উপায় না পেয়ে নির্যাতিত কিশোরীর বাবা বাদি হয়ে পাটকেলঘাটা থানায় শনিবার দুপুরে এ মামলাটি দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্যা জাকির হোসেন জানান, এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা বাদি হয়ে পাটকেলঘাটা থানা অভিযোগ দায়ের করেছেন। ধর্ষিতার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্নের জন্য তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।