তালার ৩ টি সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক সংকট

এস এম হাসান আলী বাচ্চু,তালা(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি: তালার তিনটি সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক সংকট চরম আকার ধারন করেছে। একটি স্কুলের অংকের শিক্ষক না থাকায় চরম অনিশ্চতার মধ্যে জেড়াতালি দিয়ে চলছে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষা কার্যক্রম। এছাড়া অন্য দু’টি প্রতিষ্ঠানও শিক্ষক সংকটে ভুগছে দীর্ঘদিন । ফলে এসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মান বজায় রাখা দূরুহ হয়ে পড়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির মান ফিরিয়ে আনতে শিক্ষকদের শুন্য পদ পুরনে শিক্ষা বিভাগের জরুরী হস্তক্ষেপ চেয়েছেন স্থানীয় ভুক্তভোগি অবিভাবক ও শিক্ষার্থীরা।
সুত্রে জানাযায়, তালা উপজেলা সদরে তালা সরকারী কলেজ, তালা বি.দে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, শহীদ আলী আহম্মদ সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নামে তিনটি সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। স্থানীয় ভুক্তভোগিদের অভিযোগ, সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হলেও প্রতিষ্ঠান সমূহের অবকাঠামোগত উন্নয়নের অভাব ও শিক্ষক সংকটের কারনে অন্যান্য সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো তালার এ সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলির শিক্ষার মান বজায় রাখতে গিয়ে হীমশিম খাচ্ছেন প্রতিষ্ঠান প্রধানরা। খোঁজ নিয়ে জানযায়, তালা সরকারী কলেজে ৫৬ জন শিক্ষকের পদ থাকলেও বাস্তবে রয়েছেন ৩৪ জন শিক্ষক। বিজ্ঞান বিভাগ এক প্রকার শিক্ষক শুন্য। গুরুত্বপূর্ন এই বিভাগে যদি এক্ষুনি শিক্ষক পদায়ন না করা হয় তাহলে বন্ধ হয়ে যাবে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রম । তালা বিদে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৭ জন শিক্ষকের পদ থাকলেও বাস্তবে রয়েছেন ১০ জন শিক্ষক। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন অংকের কোন শিক্ষক নেই এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। অংকের শিক্ষক না থাকলে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক শিক্ষা কর্যক্রম কি আদৌ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব? তালা শহীদ আলী আহম্মদ সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৭ জন শিক্ষকের বিপরীতে আছেন ৯ জন। ভৌত বিজ্ঞান , জীব বিজ্ঞান,ভূগোল ও অংকের শিক্ষকের সংকট রয়েছেএখানে। ফলে সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মানসম্মত শিক্ষা পদ্ধতি বজায় রাখতে এসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকদের খালিপদ পূরনের কোন বিকল্প নেই বলে মনে করছেন শিক্ষানুরাগী মানুষ।