ঢাবিতে কোটা আন্দোলনকারীদের উপর হামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাদের ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা বলেছেন, আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলা একাডেমি এলাকায় ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী তাদের মারধর করে একজনের মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে অভিযোগ করে বলেন, বিকেল ৫টার দিকে আমরা ১৭-১৮ জন বাংলা একাডেমি ক্যান্টিনে খেয়ে ফিরছিলাম। নুরুল হক নুরসহ ৭-৮ জন আমাদের পিছনে পড়ে যায়। একাডেমির মূল গেটে আসতেই দেখি ছাত্রলীগ ৬-৭টা মোটর সাইকেল নিয়ে প্রবেশ করছে। এর পরই নুরের মোবাইলে কল করে শুনি তাদের ধাওয়া করা হয়েছে। তারা সোহরাবকে মারধর করে ও মোবাইল কেড়ে নেয়। আর নুরসহ বাকিরা বিল্ডিং এ দৌড়ে পালায়।

রাশেদের অভিযোগ, ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর থেকেই ছাত্রলীগ তাদের হুমকি দিচ্ছে। আর একারণেই আজ তাদের ওপর হামলা হলো। তবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে তারা অনড় রয়েছেন।

রাশেদ বলেন, হামলার কথা জানতে পেরে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে ফোন করে হামলার কথা জানালে প্রক্টরিয়াল টিম গিয়ে তাদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

রাশেদ অভিযোগ করে বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা ক্যাম্পাসে নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে থাকেন। গত এপ্রিল মাস থেকেই তাদের কেউ হলে থাকতে পারছেন না। বাধ্য হয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে তাদের পড়ালেখা চালাতে হচ্ছে। এ ব্যাপারে তারা বিশ্ববিদ্যালয় ও হল প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েও কোনো প্রতিকার পাননি।

এ ব্যাপারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

Courtesy : The Daily Star