ঢাকায় এলেও মাওলানা সাদ ইজতেমায় অংশ নেবেন না: পুলিশ

তাবলিগের দিল্লি মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সাদ ঢাকায় এলেও বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেবেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার বরাত দিয়ে ক্রাইম বিভাগের যুগ্ম কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন এই তথ্য।

বৃহস্পতিবার সকালে কাকরাইল মসজিদের সামনে পুলিশের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। উপস্থিত হন সাংবাদিকরাও। এ সময় কৃঞ্চপদ রায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি জানান, মাওলানা সাদ ঢাকায় এলেও এবারের ইজতেমায় অংশ না নেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, মাওলানা সাদ এখন কাকরাইল মসজিদেই আছেন। তাকে ঘিরেই এই এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

এদিকে বিশ্ব ইজতেমার সার্বিক প্রস্তুতি নিয়ে র‌্যাব আয়োজিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে সংস্থাটির অতিরিক্ত পরিচালক কর্নেল আনোয়ার লতিফ জানান, মাওলানা সাদ এবারের বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন না এমন খবর তারাও পেয়েছেন। তিনি জানান, দুই পক্ষকে নিয়ে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলাপ-আলোচনা চলছে। এই ইস্যুকে কেন্দ্র করে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটবে না বলে আশা করছেন তিনি।

এবারের বিশ্ব ইজতেমার আগে তাবলিগ জামাতের বিভক্তি প্রকাশ্যে আসে মাওলানা সাদকে কেন্দ্র করে। বেশ কিছু বিতর্কিত বক্তব্য এবং কর্মকাণ্ডের কারণে আলেমদের বড় অংশটি তাকে ইজতেমায় আসতে বাধা দিয়ে আসছিলেন। এর মধ্যেই বুধবার তিনি ঢাকায় পৌঁছেন। তার এই আসাকে কেন্দ্র করে বুধবার দিনভর বিক্ষোভ হয় বিমানবন্দরসহ ঢাকার বিভিন্ন এলাকায়। দেশের বাইরেও বিভিন্ন কওমি মাদ্রাসায় বিক্ষোভ করেছেন আলেম-ওলামা এবং মাদ্রাসা ছাত্ররা।

বুধবার দিনভর বিক্ষোভের পর নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন কওমি মাদ্রাসার আলেমরা। তারা ইজতেমার সময় তুরাগ তীরে অবস্থান নেবেন এবং মাওলানা সাদ যেন বয়ান করতে না পারেন সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান। এই ইস্যু নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে এমন আশঙ্কা থেকেই মাওলানা সাদকে এবারের ইজতেমায় যোগদান থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় পুলিশ প্রশাসন।

বিশ্ব ইজতেমায় দীর্ঘদিন ধরে মোনাজাত পরিচালনা করে আসছিলেন দিল্লির মাওলানা যোবায়েরুল হাসান। ২০১৪ সালে তিনি ইন্তেকালের পর তারই চাচাত ভাই মাওলানা সাদ আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করে থাকেন। এবার তিনি ইজতেমায় অংশ না নিলে কে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন সে ব্যাপারে এখনো কিছু জানা যায়নি।

Inline
Inline