ডাকসু ইস্যু : প্রতিবন্ধীকে মারধরে আরেক প্রতিবন্ধীর অবস্থান

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক :ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে অনশন করা দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী রবিউল ইসলামকে মারধরের প্রতিবাদ জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন আরেক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আমজাদ হোসেন।

বুধবার দুপুর ২টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এ অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন তিনি। এসময় তিনি রবিউলের ওপর হামলাকারীদের বিচার চেয়ে বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত প্ল্যাকার্ড বহন করেন।

এ বিষয়ে আমজাদ বলেন, দখলদারদের হাতে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরাও নিরাপদ নয়। আমি এ হামলার বিচার চাই। অবিলম্বে হামলাকারীকে শনাক্ত করে বিচার নিশ্চিত করতে হবে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলে রবিউল ইসলামের ওপর হামলা হয়। রবিউল ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক পদে স্বতন্ত্রভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে পুনর্নির্বাচনের দাবিতে গত ১৪ মার্চ অনশনে যোগ দেন তিনি।

ভুক্তভোগী রবিউল বলেন, ‘মঙ্গলবার দুপুরে সূর্যসেন হলের নিজের কক্ষ (২০৯ নম্বর) থেকে তিন তলার একটি কক্ষে (৩২৬ নম্বর) যাচ্ছিলাম বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেয়ার জন্য। পথিমধ্যে করিডরে আমার পথ আটকে একজন জানতে চান, আমি ডাকসুর পুনর্র্নির্বাচন দাবিতে অনশন করেছিলাম কি না। হ্যাঁ বলতেই তিনি আমাকে গালিগালাজ করেন ও কিল-ঘুষি মারতে শুরু করেন। করিডরে তখন কেউ ছিল না আর আমি অন্ধ হওয়ায় ওই লোককে চিনতে পারিনি।’

এদিকে রবিউলের ওপর হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে সূর্যসেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী দরখস্ত দিয়েছে। আমরা দোষীকে সনাক্ত করে ব্যবস্থা নেব।