ডাকসুতে নুর-ই কোটা আন্দোলনকারীদের ভিপি প্রার্থী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ডামাডোল চলছে। দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনকে ঘিরে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল বলয়ের বাইরে আরো যে সংগঠনটি শক্তিশালী হয়ে উঠেছে তা হলো- বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ তথা কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা। তবে সংগঠনটির পক্ষ থেকে ভিপি পদে কে আসছেন? আর কারাই বা লড়বেন জিএস, এজিএস, সমাজসেবা, ছাত্র কল্যানসহ অন্য পদগুলোয়?

বিশ্বস্ত দুটি সূত্রে জানিয়েছে, সংগঠনটির যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুল হক নুরকেই ভিপি (ভাইস প্রেসিডেন্ট) পদে চূড়ান্ত করে রেখেছে সংগঠনটি। তবে জিএস পদে কে থাকবেন- সেটি নিয়ে কিছু ধোঁয়াশা আছে। গুরুত্বপূর্ণ অন্য সব পদে রয়েছেন মোহাম্মদ রাশেদ খাঁন, ফারুক হাসান, বিন ইয়ামিন মোল্লাসহ অন্যান্যরা। সংগঠনটি আজ বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে প্যানেল ঘোষণা করবে।

এর আগে সকালে পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হাসান দ্য ডেইলি ক্যাম্পাসকে জানান, বিকালে সংবাদ সম্মেলন করা হবে। সেখানেই মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে প্যানেল ঘোষণা করা হবে। পরে নেতারা নিজ নিজ হলে গিয়ে মনোনয়ন ফরম তুলবেন।

নির্বাচন স্থগিত চেয়ে রিট: এদিকে ভোটার তালিকায় নাম না থাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ছাত্রী ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক ফাহমিদা মজিদ। রবিবার ফাহমিদা মজিদের পক্ষে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

পরে আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল সাংবাদিকদের বলেন, ভোটার তালিকায় রিটকারীর নাম না থাকায় হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। রিটের নির্বাচনের তফসিল স্থগিত চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি রিটকারী শিক্ষার্থীর নাম ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত না করে তফসিল ঘোষণা করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না সে মর্মে রুল জারির আরজি জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন ১১ মার্চ। নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়ন ফর্ম বিক্রি সময় শেষ হচ্ছে কাল। শিক্ষার্থী অধিকার মঞ্চে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫ জন শিক্ষার্থী ডাকসু নির্বাচন বিষয়ে উচ্চ আদালতে রিট করেন। সেই রিটের পরিপ্রেক্ষিতে এবারের ডাকসু নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার নির্দেশ দেন আদালত। তারই ধারাবাহিকতায় দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ডাকসু নির্বাচন।