ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বাংলাদেশি নাগরিকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা : ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার রত্নাই সীমান্ত এলাকার নাগর নদী থেকে সাহিদুর রহমান নামে ২৭ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি নাগরিকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত ১১টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হরিনমারী গ্রামের খতিব উদ্দিনের ছেলে সাহিদুর রহমানসহ কয়েকজন রত্নাই সীমান্তের ৩৮২ নং পিলার এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ করে। এ সময় ভারতের ১৭১ সোনামতি ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা গুলি ছুড়লে সাহিদুর আহত হয়। প্রাণের ভয়ে সঙ্গীরা পালিয়ে গেলেও সাহিদুর নদীতে পড়ে যায়। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে বিজিবি ও পুলিশ সাহিদুরকে খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে রাত ১১টার দিকে ৩৮২ নং পিলার এলাকার আমতলী গ্রাম সংলগ্ন নাগরনদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে স্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া না গেলেও বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চিত্তরঞ্জন দাস জানান, সাহিদুরের শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।