ঠাকুরগাঁওয়ে নৈশ প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা : ঠাকুরগাওয়ের রুহিয়ায় একটি হাসকিং মিলে লেদু মিয়া(৬৫) নামে এক নৈশ প্রহরীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে রুহিয়া থানা পুলিশ তার উদ্ধার করে। তিনি ঠাকুরগাও সদর উপজেলার ঘনিমহেশপুর গ্রামের মৃত লবানু মোহাম্মদের ছেলে।

পুলিশ জানায়, লেদু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে ২০ নং রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অনিল চন্দ্র সেনের রামনাথহাটের শাপলা হাসকিং মিলের নৈশ প্রহরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার রাতে ওই মিলে পাহারা দিতে যান এবং মিলের উত্তর পাশে একটি খোলা ঘরে শুয়ে ছিলেন তিনি। রাতের কোনো এক সময় একদল দূর্বৃত্ত লেদু মিয়াকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে।

ওই মিলের কর্মচারী দীপাল চন্দ্র সেন সকাল ৯ টায় মিলে এসে বৃদ্ধ লেদুকে রক্তাক্ত ও মৃত অবস্থায় দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয়রা তার লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করে।

সকাল সাড়ে ১০ টায় মিল মালিক অনিল চন্দ্র সেন ঠাকুরগাও শহর থেকে ঘটনাস্থলে আসেন। মিল মালিক অনিল সেন সাবেক পানি সম্পদ মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেনের কাকাতো ভাই। বিষয়টি রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড কিনা তা পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে।

রুহিয়া থানার ওসি প্রদীপ কুমার রায় জানান, এ হত্যাকাণ্ডের কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত চলছে।