‘ট্রাম্প বেবি’র ভয়ে লন্ডন এড়িয়ে যাবেন ট্রাম্প!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চলতি সপ্তাহে তিন দিনের ব্রিটেন সফর করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে এবারের ব্রিটেন সফর তার জন্য খুব একটা সুখের হবে না। কারণ, এরই মধ্যে ট্রাম্পের সফর উপলক্ষ্যে লন্ডনে বিশাল বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে ট্রাম্প বিরোধীরা। এছাড়া লন্ডনের আকাশে ট্রাম্পের ব্যাঙ্গাত্মক বেবি বেলুন ‘ট্রাম্প বেবি’ ওড়ানোর অনুমতি দিয়েছেন শহরের মেয়র সাদিক খান।

ট্রাম্পের সফর উপলক্ষে লন্ডনে এমন পদক্ষেপ নেয়ার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, তিন দিনের সফরে ট্রাম্প লন্ডনে বিশেষ কোনও সময় কাটাবেন না। তিনি শুধু একটি রাত সেখানে কাটাবেন।

থেরেসা মের দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, তিন দিনের সফরে বৃহস্পতিবার স্বস্ত্রীক ব্রিটেন পৌঁছবেন ট্রাম্প। প্রথম দিন অক্সফোর্ডশায়ারের ব্লেনহাইম প্রাসাদে মার্কিন অতিথিদের জন্য বিশেষ নৈশভোজে যোগ দেবেন তিনি। রাতে লন্ডনে ফিরলেও রাতটুকু কাটিয়েই চলে যাবেন বাকিংহামশায়ার। সেখানেই প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে-র সঙ্গে বৈঠক করবেন ট্রাম্প। শুক্রবার বিকেলে উইন্ডসর প্রাসাদে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করবেন ট্রাম্প দম্পতি।

এরপর তিনি ব্যক্তিগত কাজে স্কটল্যান্ডেই বেশি সময় কাটাবেন। স্কটল্যান্ডের কোনও সফরসূচি প্রকাশ না করা হলেও শোনা যাচ্ছে, থেরেসা মে’র স্বামী ফিলিপের সঙ্গে গলফ খেলে সময় কাটাবেন ট্রাম্প।

তবে ব্রিটেন সফর করলেও লন্ডনে তার বড় কোনও কর্মসূচি বা সময় কাটানোর পরিকল্পনা না থাকায় অনেকে অবাক হয়েছেন। কেউ কেউ বলছেন, লন্ডনে ট্রাম্পবিরোধীদের ব্যাপক কর্মসূচির কারণেই মূলত ট্রাম্প লন্ডন এড়িয়ে চলতে চাইছেন।
তবে এমন যুক্তি নাকচ করে দিয়ে ব্রিটেনের মার্কিন রাষ্ট্রদূত উডি জনসন জানিয়েছেন, কোনও কিছুর ভয় করে প্রেসিডেন্ট লন্ডন এড়িয়ে যাচ্ছেন না। তার সফরসূচি যেভাবে ছিলো সেভাবেই আছে।

ট্রাম্পের সফর উপলক্ষে একন লন্ডনের অন্যতম আলোচনার বিষয় হলো ‘ট্রাম্প বেবি’। ট্রাম্পের মুখের আদলে তৈরি করা বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গির এ বেলুন পুতুল ট্রাম্পের সফরকালীন সময়ে আকাশে ওড়ানোর পরিকল্পনা করেছে ট্রাম্পবিরোধীরা। আর এ বেলুন ওড়ানোর অনুমতি দিয়েছেন খোদ লন্ডনের মেয়র সাদিক খান।

এছাড়া ট্রাম্পবিরোধি বিক্ষোভে কয়েক হাজার মানুষ জড়ো করার পরিকল্পনা করেছে বিক্ষোভের আয়োজনকারীরা।