ট্রাম্পকে ‘অকর্মা’ বলা ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের পদত্যাগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত স্যার কিম ডেরেক পদত্যাগ করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘অকর্মা’ বলা মেইল ফাঁস হওয়া নিয়ে চলমান উত্তেজনার মুখে তিনি পদত্যাগ করেছেন বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

ডেরেক তার পদত্যাগ পত্রে লিখেছেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি আমাকে আমার দায়িত্ব পালনকে অসম্ভব করে তুলছে, যা আমি করতে চাই। আমি বিশ্বাস করি বর্তমান অবস্থাটার কারণে যে পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে তাতে করে একজন নতুন রাষ্ট্রদূত নিয়োগ দেয়া দরকার।’

গতকাল মঙ্গলবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে কিম ডেরকের প্রতি ‘পূর্ণাঙ্গ সমর্থন’প্রকাশ করেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট থেরেসা মের এমন মনোভাবের কথা জানায়। তবে ট্রাম্প অভিযোগ তুলে বলেছেন, ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত তার দেশের জন্য কাজ করছেন না।

ওয়াশিংটনে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত কিম ডেরক লন্ডনে পাঠানো কিছু ইমেইল বার্তায় ট্রাম্প প্রশাসনকে ‘একেবারেই অকার্যকর, বিভক্ত, অদক্ষ এবং অনিরাপদ’ বলে মন্তব্য করেন। গত রোববার ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল ওই ইমেইলগুলো প্রকাশ করলে বিষয়টি নিয়ে হইচই পড়ে যায়।

দীর্ঘদিনের মিত্র যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে রাষ্ট্রদূত কিম ডেরকের মেইল ফাঁসের এমন বিষয় নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। রাষ্ট্রদূতকে থেরেসা মের সমর্থনের প্রতিক্রিয়ায় ডেনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘থেরেসা মে এবং তার প্রতিনিধিরা কী একটা জগাখিচুড়ি বানিয়ে রেখেছেন।’ মের ব্রেক্সিট ব্যর্থতা নিয়েও কটাক্ষ করেন তিনি।