ট্রাফিন আইন ভেঙে এক ব্যক্তির ১.৮২ লাখ রুপি জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাস্তার ক্রসিংয়ে এসে সবে ‘স্টপ’ লাইন পেরিয়েছেন, অমনি সিগনালে লাল আলো। তাতেই কিছুদিনের মধ্যেই আপনার বাড়িতে চলে আসবে ১০০ রুপির জরিমানার চিঠি।

কিংবা, হয়তো ফাঁকা বাইপাসে, রাতে খানিক বাড়িয়ে দিয়েছিলেন গাড়ির গতি। কিছুদূর এগোতেই ট্র্যাফিক সার্জেন্টের হাতের ইশারায় দাঁড়াতেই হলো। হাতে ধরানো হলো মোটা অংকের জরিমানার রশিদ। এমন পরিস্থিতিতে কম-বেশি আমরা অনেকেই হয়তো পড়েছি। কিন্তু শুধুমাত্র এক বছরে যদি দিতে হয় ১ লাখ ৮২ হাজার রুপির জরিমানা তা হলে?

অবাক হচ্ছেন তো? কিন্তু ঠিক এমনটাই ঘটেছে হায়দ্রবাদের এক ব্যক্তির সঙ্গে। হোন্ডা জ্যাজ গাড়ির মালিক এই ব্যক্তি ২০১৭ সালের ৪ এপ্রিল থেকে ২০১৮ সালের ১০ মার্চ পর্যন্ত মোট ১২৭ বার ট্র্যাফিক আইন ভেঙেছেন। নির্দিষ্ট গতিসীমার বাইরে গিয়ে গাড়ি চালানোর অপরাধে এই এক বছরে তার জরিমানার অংক ছাড়িয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার রুপি।

এই ঘটনার কথা জানা গিয়েছে তেলেঙ্গানা রাজ্যের ই-চালান পোর্টালে। তেলেঙ্গানায় নির্দিষ্ট সীমার বাইরে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানোর জন্যে জরিমানার অংক ১,৪৩৫ রুপি।

আরজিআই এয়ারপোর্ট ট্রাফিক পুলিশ স্টেশনের পরিদর্শক ডি ভি রাঙ্গা রেড্ডি বলেছেন, ‘আমরা সাধারণত জরিমানার কথা ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে জানিয়ে দিই। কিন্তু যে ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি যদি আমাদের নথিতে নিবন্ধিত নম্বর বর্তমানে আর ব্যবহার না করেন তাহলে তো তিনি কোনও বার্তা পাবেন না। আমরা গাড়ির নম্বর প্রত্যেক টোলগেটে পাঠিয়ে দিয়েছি এবং নির্দেশ দেয়া হয়েছে এই গাড়ির খোঁজ পেলেই তা যেন আটকানো হয়। জরিমানার টাকা যাতে দ্রুত পাওয়া যায় সেই চেষ্টাই করা হচ্ছে।’

সূত্র: এই সময়

Inline
Inline