টেনিসে ‘ব্যাপক ম্যাচ ফিক্সিং’ জড়িত গ্র্যান্ডস্লাম জয়ীও

এবার টেনিসেও ব্যাপক ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ তোলা হয়েছে। বিশ্বের শীর্ষ ৫০ র্যাং কধারী টেনিস তারকাদের ১৬ জন এ ফিক্সিংয়ে জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। রবিবার এ অভিযোগ করা হয়।

বিবিসি ও বাজফেড নিউজের দাবি, বিশ্ব টেনিসের শীর্ষ পর্যায়ে ব্যাপক দুর্নীতি রয়েছে। এ সম্পর্কে তাদের হাতে গোপন নথি ও প্রমাণ রয়েছে।

গত এক দশকে বিশ্বের শীর্ষ ১৬ টেনিস খেলোয়ার বারবার ম্যাচ ফিক্সিং করেছে বলে দাবি বিবিসির। এতে টেনিস ইন্টিগ্রেটি ইউনিট (টিআইইউ) কলঙ্কিত হয়েছে।

গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী তারকাসহ ফিক্সিংয়ে জড়িত ওইসব খেলোয়াররা এখনও প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন।

সোমবার মেলবোর্নে বছরের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম প্রতিযোগিতা ‘অস্ট্রেলিয়ান ওপেন’ শুরু হওয়ার আগে এ তথ্য প্রকাশ হল।

বিবিসি ও বাজফেড নিউজ জানায়, ২০০৭ সালে পুরুষ টেনিসের উপর করা এটিপির করা একটি তদন্ত রিপোর্ট তাদের হাতে রয়েছে।

তাদের দাবি, রাশিয়া, ইতালি ও সিসিলিতে বেটিং সিন্ডিকেটরা ম্যাচ ফিক্সিং করে হাজার হাজার ডলার কামিয়েয়েছে। বিবিসি জানায়, উইম্বলন্ডনের ৩টি ম্যাচও ফিক্সিং হয়েছে।

২০০৮ সালে ২৮ খেলোয়ারের ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার বিষয়ে তদন্ত করার কথা ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে আর পুরো তদন্ত করা হয়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

২০০৯ সালে আইনি পরামর্শ নেয়া হয়, কিন্তু পূর্ববর্তী দুর্নীতি ধরা পড়েনি।