ঝালকাঠিতে পাঁচ নৌ পুলিশের বিরুদ্ধে জেলের মামলা

ঝালকাঠির রাজাপুরের নিয়ামতি নৌ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক আতিকুর রহমানসহ পাঁচ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণ, চাঁদাবাজি, হামলা ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে আদালতে মামলা করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে ঝালকাঠি জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এ মামলা করেন উপজেলার পালট গ্রামের মৃত রফিজ উদ্দিন খানের ছেলে জেলে মন্নাফ খান।

আদালতের বিচারক ইখতিয়ার উল ইসলাম মল্লিক আগামী ২৯ নভেম্বর মামলাটির শুনানির দিন ধার্য্য করেছেন বলে মামলার আইনজীবী মানিক আচার্য্য জানিয়েছেন।

মামলার অন্য চার আসামি হলেন- বাখেরগঞ্জের নিয়ামতি নৌ পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক মো. আফজাল হোসেন, নায়েক মো. রিয়াজুল হক, কনস্টেবল আনোয়ার হোসেন, আলতাফ হোসেন ও আলহাফ হোসেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, আসামিরা জেলেদের কাছ থেকে সপ্তাহে ১ হাজার টাকা করে চাঁদা আদায় করে আসছিলেন। কেউ তা না দিতে পারলে জাল ও নৌকা আটক রাখা হতো। পরে ৫ হাজার টাকা দিয়ে তা ছাড়িয়ে নিতে হতো। পরবর্তীতে পুলিশ সদস্যরা দেড় হাজার টাকা চাঁদা দাবি করলে জেলেরা তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এরপরই জেলেদের ওপর ক্ষিপ্ত হন পুলিশ সদস্যরা। এর জের ধরে ১৫ নভেম্বর জেলে নুরুজামানকে ধরে নিয়ে মারধর করেন আসামিরা। এ সময় তার মা এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর ও শ্লীলতাহানি করা হয়। মারধর করা হয় আরও কয়েক জেলেকে। পরে ২০ হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে নুরুজ্জামানকেকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।