জয় দেখছে বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম টেস্টে স্পিন জাদুতে জয় দেখছে বাংলাদেশ। মাত্র ২২ ওভারের মাঝে আট ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশি বোলাররা। জয়ের জন্য বাংলাদেশের দরকার আর দুই উইকেট। বাংলাদেশের হয়ে মাত্র ১০ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়েছেন তাইজুল ইসলাম।

প্রথম সেশনে তাইজুল-সাকিবের জোড়া আঘাতে চার উইকেট হারায় সফরকারীরা। এরপর লাঞ্চ থেকে ফিরেও তাইজুল-মিরাজের ব্যাট হাতে বেশ একটা সুবিধা করতে পারছে না তারা।এই প্রতিবেদন লেখার সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ সাত উইকেটে ৭৪ রান। ২১ রানে ব্যাট করছেন অ্যামব্রিস। তার সঙ্গে ১ রানে অপরাজিত কেমার রোচ।

বাংলাদেশের দেয়া ২০৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপদে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সাকিব-তাইজুলের জোড়া আঘাতে দিশেহারা অতিথিরা। মাত্র ১১ রানের উইন্ডিজদের চার উইকেট নিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

সফরকারীদের ইনিংসের শুরুতেই জোড়া আঘাত আনেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তৃতীয় ওভারের ৪ নম্বর বলে কাইরন পাওয়েলকে ফিরিয়ে দেন সাকিব। আর এই উইকেটের মাধ্যমে প্রথম বাংলাদেশি বোলার হিসেবে টেস্টে দুইশ উইকেট নিলেন বাঁহাতি এই স্পিনার।

পাওয়েলের পর আরেক টপ অর্ডার শাই হোপকেও টিকতে দিলেন না সাকিব। দারুণ ডেলিভারিতে মাত্র তিন রানে হোপকে সাজঘরে পাঠান তিনি।

সাকিবের পর ক্যারিবীয় ইনিংসে জোড়া আঘাত আনেন তাইজুল ইসলাম। একই ওভারে পরপর দুই ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে দেন এই স্পিনার। নিজের প্রথম ওভারের ১ নম্বর বলে ফেরান ওপেনার ব্রাথওয়েটকে(৮) এরপর একই ওভারের ৫ নম্বর বলে ফেরান রোস্টন চেজকে(০)।

চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিন লাঞ্চের আগে শেষ বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংস। দেবেন্দ্র বিশুর দারুণ বোলিংয়ে ১২৫ রানেই অলআউট বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসের লিড সহ বাংলাদেশের সংগ্রহ ২০৩ রান। জয়ের জন্য ২০৪ রানের লক্ষ্য নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

বৃহস্পতিবার প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সব উইকেট হারিয়ে ৩১৫ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশে। এরপর শুক্রবার প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ২৪৬ রানে অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। একই দিনে শেষ সেশনে ৭৮ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছিল লাল-সবুজরা।