জামালগঞ্জে সরকারী বিনামূল্যে সার-বীজের তালিকায় অনিয়ম

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলায় সাচনা বাজার ইউনিয়নের্ কৃষি পূর্ণবাসন কর্মসূচীর আওতায় বিনামূল্যে সরকারী সার বীজ পাওয়ার তালিকায় অনিয়ম করায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, সাচনা বাজার ইউনিয়নের ০৮নং ওয়ার্ডের অর্ন্তগত হরিহরপুর,আতকাপাড়া গ্রামের স্থায়ী কৃষক বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকারের আওতায় কৃষি কার্ড থাকা সত্বেও মেম্বার কর্তৃক নতুন তালিকা থেকে বাদ পড়েন উক্ত গ্রামের কৃষক।

৮নং ওর্য়াডে মেম্বার মানিক মিয়া কৃষি তালিকায় নাম অন্তরভুক্ত করে দিবে বলে গ্রামের কৃষকদের কাছ থেকে তাদের আইডি কার্ডের ফটোকপি নিয়ে আসে,পরবর্তিতে এর কোন খোজ খবর পাওয়া যায়নি। আরও জানা যায়, মানিক মিয়া একই পরিবারে ৩/৪ জনের নামে কৃষি পুর্নবাসন কর্মসূচীর আওয়তায় তালিকা করায় , গ্রামের কৃষক একত্রিত হয়ে জামালগঞ্জ কৃষি অফিসে যোগায়োগ করলে তালিকায় তাদের নাম নেই বলে জানিয়ে দেয়। তালিকা থেকে বাদ পড়ার কারন কৃষকগণ ইউপি সদস্য মানিক মিয়ার কাছে জানতে চাইলে রাগান্বিত হয়ে চলে যায়। কোন সুদুত্তর না পেয়ে গ্রামের কৃষক আব্দুর জহুর,আরিফা বেগম, আমিনা,শাকিয়া,মিনহা বেগম,দিগেন দাস,আ: রহিম সহ আরো অনেক গতকাল বুধবার ২২/১১/১৭ইং তারিখে জামালগঞ্জ নির্বাহী অফিসার’র বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ভোক্তভোগী কৃষকগণ বলেন, আমরা গরীব মানুষ,কিছু নিজের জমি ও অন্যের জমি টাকা দিয়ে রেখে চাষ করি,গত ফসল হানীতে একরতি ধানও ঘরে তুলতে না পেরে,এখন অন্যের বাড়িতে কাজ-কাম করে কিছু টাকা আনি, আর তা দিয়ে সংসার চালাই। এইবার বীজের যে দাম,তাতে ভাত খাইমু না,বীজ ধান কিনমু,মেম্বার প্রত্যেকবারই আমারে কয় তোমরা দস্তখত দেও,আমি তোমরার লাগি ব্যাবস্থা করতাছি,কিছুদিন যাওনের পরে আমরা জিগাইলে কয় আমিতো দিছলাম, উপরের এরা তোমরার নাম বাদ দিছে,ওখন আমি কিতা করতাম। এই পর্যন্ত কতজন কতকিছু পাইছে আমরারে কোন কিছু দেয়না,আমার দোষটা কিতা?

সাচনা বাজার ০৮নং ওয়ার্ডের সদস্য মানিক মিয়া বলেন, যাদের পরিবারে নাম বেশি ,তাদের বাদ দিয়ে বর্তমান তালিকায় যারা বাদ পড়েছে পরবর্তীতে তাদের দেওয়া হবে।

জামালগঞ্জ নিবার্হী অফিসার (অঃদাঃ) মনিরুল হাসান বলেন,অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেব।