জামালগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৮ জনের কারাদণ্ড

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : জামালগঞ্জ উপজেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ভিন্ন অপরাধে ও ভিন্ন মেয়াদে ৮ জন কে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সাচনা বাজার ইউনিয়নের সুজাতপুর গ্রাম থেকে মৃত আব্দুল হক এর পুত্র গোলাম হোসেন(৩২)কে জামালগঞ্জ থানা পুলিশ ২পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ অটক করে। পরবর্তীতে তাকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্য্যালয়ে হাজির করা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শামীম আল ইমরান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন।
জানা যায়, আসামী গোলাম হোসেন(৩২) দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত তার অত্যাচারে তার মা সহ পরিবারের সবাই বাড়ি ছাড়া। ঐ সময় তার মা ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপস্থিত হয়ে তার সর্বোচ্চ শাস্তি কামনা করেন।
অপর দিকে একই দিনে উপজেলার সাচনা বাজারের গলিতে অবৈধভাবে দোকান পরিচালনা করার দায়ে ৭ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে কারাদণ্ড প্রদান করেন। উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: মনিরুল হাসান থানার পুলিশ ফোর্সসহ এই অভিযান পরিচালনা করেন। পরবর্তীতে তাদের প্রত্যেককেই ৩ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, সাচনা বাজার ইউনিয়নের পলক গ্রামের আব্দুন নুরের পুত্র নুর জামাল(২৮), একই গ্রামের রহমত আলীর পুত্র আরশাদ আলী(৩৬), সাচনা গ্রামের মৃত সুলেমান মিয়ার পুত্র ইমন(১৯), শেরমস্তপুর গ্রামের সাদেক আলীর পুত্র শফিক মিয়া(৩৫), জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের নয়হালট গ্রামের মৃত হরমুজ আলীর পুত্র আঙ্গুর মিয়া(৬০), জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের পশ্চিম লম্বাবাক গ্রামের আমজদ আলীর পুত্র ইকবাল হোসেন(৬০), ভীমখালী ইউনিয়নের মাহমুদপুর গ্রামের রমজান আলীর পুত্র শামছুদ্দিন(৩৭)। এদের প্রত্যকের ৩ দিন করে ভ্রাম্যমাণ আদালত দন্ডবিধি ২৯১ ধারায় বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামীগণ থানা হাজতে রয়েছে।
এ ব্যাপরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আল ইমরান বলেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণসহ অবৈধ দোকান পাটের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে।