জামালগঞ্জে দুবৃত্তদের আগুনে ৩টি ঘর পুড়ে ছাই

অনিমেশ দাস, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামে দক্ষিণ পাশে ৩টি ঘর পুড়ে ছাই করেছে দুবৃত্তরা। রোববার দিবাগত রাত ৪ ঘটিকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা যায় পূর্বের শত্রুতার জের ধরে পাশ্ববর্তী ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের স্বরসতিপুর মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সাথে একই ইউনিয়নের বানরশীপুর গ্রামের হজর আলী (৪৫), নুরে আলম (৩০), দুলা মিয়া (২৩), নবী হোসেন (২৮), রুবেল মিয়া (২২) সহ ১৫ জনের একটি দল গভীর রাতে ৩টি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এমন সময় স্বরসতিপুর মৎস্য জীবি সমবায় সমিতির ম্যানেজার ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ মাইজ বাড়ীর গ্রামের কাছন আলী তালুকদারের দ্বিতীয় পুত্র দুলাল মিয়া (৪৭) কে দুবৃত্তরা আঘাত করে তার কাছ থেকে নগদ ৩ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। দুলাল টাকা দিতে বাঁধা দেওয়ায় তাকে আঘাত করে দুবৃত্তরা চলে যায়। দুলাল বলেন, মুকসেদপুর দিঘর গ্রুফ ফিশারীজ এর মাছ বিক্রয়ের নগদ ৩ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা, তিনটি ঘর ও হিসাবের কাগজপত্র, আসবাবপত্র সহ প্রায় ১০ লক্ষ টাকার মালামাল নষ্ট হয়েছে। আমাকে প্রাণে মেরে ফেরার চেষ্টা করেছিল জান ভিক্ষা চেয়ে বেঁচে আছি, এ ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে আসছে। সরজমিনে অনুসন্ধানে জানা যায়, তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের টেকের ঘাট গ্রামের মৃত নবী খাঁ এর ছেলে পাহারাদার অদুদ মিয়া (৪০) বলেন, আমি উক্ত ব্যক্তিদের দেখেছি এবং মারামারির ভয়ে দুরে চলে যাই। ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মৃত মনোয়ার আলীর ছেলে আব্দুল জব্বার (৪৫) বলেন, আমি ওদেরকে দেখেছি আগুন লাগানোর পর। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের সাথে একাধিক বার চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। স্বরসতিপুর মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি আলখাছ মিয়া (৬৫) বলেন, এমন ধরণের ভঙ্কংকর ঘটনা পূর্বে কখনও ঘটেনি। আমি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুবিচার প্রার্থনা করি। এ ব্যাপারে ধর্মপাশা উপজেলার মধ্যনগর থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান সমিতির সাধারণ সম্পাদক উজ্জত আলী কাছা মিয়া।

Inline
Inline