সুরমা নদীর সাচনা বাজার টু জামালগঞ্জ স্পটে ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার, ব্রীজ দাবী করেছেন এলাকাবাসী

জামালগঞ্জ থেকে কামাল হোসেন : সাচনা বাজার অতি পুরাতন ও স্বনাম ধন্য একটি বাজার, প্রতি বাজার বারে (সোমবার) প্রায় লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটে। বাজারে আগত ক্রেতা বিক্রেতাদের অধিকাংশই আসেন জামালগঞ্জ হয়ে। জামালগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, জামালগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং জামালগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ ইত্যাদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে জামালগঞ্জে। যার বেশিরভাগ ছাত্রছাত্রীর সাচনা বাজার থেকে সুরমা নদী পাড়ি দিয়ে জামালগঞ্জে আসতে হয়। সুরমা নদীর সাচনা বাজার টু জামালগঞ্জ পারাপারের একমাত্র মাধ্যম হলো নৌকা/ফেরী। ছাত্র/ছাত্রীদের অনেকেই সাঁতার জানেনা। প্রায়ই নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটে থাকে। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এসব এলাকার শিক্ষার্থীদের চলাচল করতে হয়। এছাড়া জামালগঞ্জে রয়েছে সদর হাসপাতাল, থানা, বিভিন্ন ব্যাংক অফিস আদালত ইত্যাদি। জরুরী প্রয়োজনে হাসপাতাল, ব্যাংক বা থানা পুলিশের প্রয়োজন হলে ভোগান্তির শেষ থাকে না। তারপর রয়েছে তো মৃত্যুঝুঁকি। তাই সাচনা টু জামালগঞ্জ স্পটে ফেরীর পরিবর্তে একটি ব্রীজ অতি জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজন বলৈ দাবী করেছেন এলাকাবাসী।
উল্লেখ্য, সাচনা টু জামালগঞ্জ ব্রীজ চালু হলে শুধু জামালগঞ্জ উপজেলা নয় আরো উপকৃত হবে ভাটী এলাকার মানুষ বিশেষ করে ধর্মপাশা, মধ্যনগর, মহনগন্জ বাসী সহ আশেপাশের সকল এলাকার মানুষ। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি শুধু নয় দ্রব্যমূল্য থাকবে হাতের নাগালে। চাষীরা স্বল্প সময়ে ধান, চাল, তরিতরকারী, শাক্-সব্জি ইত্যাদি বাজারজাত করতে পারবে। তাই জরুরী ভিত্তিতে সাচনা বাজার টু জামালগঞ্জ ব্রীজ অনুমোদন ও তা বাস্তবায়ন করার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ করছেন এলঅকাবাসী।