অবশেষে শিশু অচিন্ত উদ্ধার!

কক্সবাজার সংবাদদাতা : অনেক আইনী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর অবশেষে উদ্ধার করা সম্ভাব হয়েছে শিশু অচিন্ত বর্মনকে বৃহস্পতিবার ( নভেম্বর) বেলা সোয়া ১০টায় রামু থানাথীন ধরপাড়া থেকে উদ্ধার করা হয় দুই বছর মাস বয়সী শিশু অচিন্ত বর্মনকে

মামলা সুত্রে জানা যায়, কক্সবাজার জেলার রামু থানাথীন পূর্বউমখালা ধরপাড়া এলাকার মৃত: বানীকান্ত ধরের পুত্র অমল কান্তি ধর এর সাথে শংকর চন্দ্র বর্মন এর কন্যা স্মৃতি রাণী বর্মনের সাথে হিন্দু ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী গত ২৬/০১/১৪ইং তারিখে বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকে যৌতুক দাবীসহ বিভিন্ন অযুহাতে স্মৃতি রাণী বর্মনের উপর শারীরিক নির্যাতন করতে থাকে অমল কান্তি ধর। এক পর্যায়ে গত ২৮/১০/১৮ইং তাদের একমাত্র সন্তান অচিন্তকে তার মায়ের কোল থেকে কেড়ে নিয়ে অমল সন্তানকে রেখে তার স্ত্রী স্মৃতিকে এক কাপড়ে ঘর থেকে বের করে দেয়। দুখিনী মা স্মৃতি রাণী তার সন্তানকে পাবার আশায় মরিয়া হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে স্মৃতি রাণী কোন উপায় না পেয়ে গাজীপুর আদালতে মামলা করেন। বিজ্ঞ আদালত তার মামলা সার্চ ওয়ারেন্ট ইস্যু করেন। আদালতের নির্দেশে রামু থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে অভিযানে নামেন। শিশু অচিন্তকে উদ্ধারের জন্য রামু থানার এসআই মং এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ দূর্গম এলাকায় অবস্থিত অমলের বাড়িতে হানা দিয়ে অচিন্তকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। এসময় পুলিশের সাথে শিশুটির মা স্মৃতি রাণী বর্মন উপস্থিত ছিলেন

দির্ঘদিন পর সন্তানকে ফিরে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পরেন মা স্মৃতি রাণী। আর সন্তান ফিরে পায় তার মাকে। এর চেয়ে আর আনন্দের কি হতে পারে? রামু থানার পুলিশের আন্তরিকতা বিশেষ করে এসআই মং এর বিজ্ঞতা লক্ষনীয় ছিল। বর্তমানে শিশুটি পুলিশের হেফাজতে আছে

জানা যায়, গাজীপুর আদালতের মাধ্যমে অচিন্তকে হস্তান্তর করা হবে। শিশু অচিন্ত তার মায়ের কাছে আছে। স্মৃতি রাণীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট সকলকে সহযোগীতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়েছে

Inline
Inline