জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার মানব বন্ধন সাংবাদিক নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের দাবীতে

সারাদেশে অব্যাহত সাংবাদিক নির্যাতন, হামলা, মিথ্যা মামলা ও হয়রাণীর প্রতিবাদে এবং সময়োপযোগী সাংবাদিক নিরাপত্তা আইন ও জাতীয় সাংবাদিক অধিকার সনদ প্রণয়নের দাবীতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা আজ সকালে এক মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করে। সংস্থার সভাপতি মুহম্মদ আলতাফ হোসেনের সভাপতিত্বে মানব বন্ধন-পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংস্থার সহ-সভাপতি আলমগীর গনি, মহাসচিব সাজ্জাদুল কবীর, অর্থ সচিব শাহাদাত হোসেন রিটন, দফতর সচিব হেলাল উদ্দিন, প্রচার সচিব এস এম সারওয়ার, প্রশিক্ষণ সচিব আবু হানিফ খান, জনকল্যাণ সচিব আমেনা বেগম বিউটি, পাঠাগার সচিব মাসুদ আলম, মানবাধিকার সচিব আকাশ মাহমুদ মোল্লা, নির্বাহী সদস্য আলতাফ হোসেন প্রমুখ।
মুহম্মদ আলতাফ হোসেন তার সভাপতির ভাষণে বলেন, দেশের সাংবাদিক সমাজ এখন বিভিন্ন মহলের চক্ষুশূল হয়ে হত্যা, হমলা, মামলা আর নানামুখী নির্য়াতন ও হয়রানির শিকার হচ্ছেন। গত ২ ফেব্রুয়ারী দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আব্দুল হাকিম শিমুলকে গুলী করে হত্যা করেছে পৌর মেয়র, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেস্টা ও ডেইলী অবজারভার সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে,, খুলনায় সাংবাদিক ইসরাত ইভা দম্পত্তির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা হয়েছে,, সাতক্ষীরায় সন্ত্রাসী চেয়ারম্যান কর্তৃক সাংবাদিক জুলফিকার আলীর হাতের নখ তুলে নেয়া হয়েছে, কতিপয় পুলিশ কর্মকর্তার রোষানলে পড়ে সাভারের দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন’র প্রতিনিধি নাজমুল হদা এখনও কারা নির্য়াতন ভোগ করছেন, শাহবাগে পুলিশী বরর্বতার শিকার হয়েছেন এটিএন বাংলার সাংবাদিক। এসব ন্যক্কারজনক ও বর্বর হামলা প্রমাণ করে দেশে সাংবাদিকরা ভালো নেই, তাদের কন্ঠ ও কলম স্তব্ধ করে দেয়ার চক্রান্ত করছে চিহ্নিত মহল। এ অপতৎপরতা রুখে দিতে না পারলে দেশ-জাতি-জনতা মহা সংকট ও বিপর্যযের মুখোমুখি হবে। সেই সংকট মোকাবেলা দূরূহ হয়ে পড়বে। তিনি সময় থাকতে সচেতন হওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।
মানব বন্ধন শেষে প্রেস ক্লাব থেকে পল্টন মোড় পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করা হয়।