জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আওয়ামীলীগের প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ

রফিক হাসান- সোহাগ : ( ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে ) আসন্ন একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া ২ ( সরাইল- আশুগঞ্জ) নির্বাচনীয় এলাকার আওয়ামিলীগ থেকে সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী অর্ধ ডজনের ও বেশি নেতাকর্মী মাঠে নেমেছে। নির্বাচনের দিন খন ঠিক না হলেও ইতিমধ্যে মাঠে নেমে প্রচার- প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছে প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা। সরাইল- আশুগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়ন পাড়া মহল্লায় চালাচ্ছে গণসংযোগ ও মিটিং সমাবেশ। আবার কেউ কেউ সাধারণ ভোটারদের ধারপান্তে দোয়া প্রার্থী হচ্ছে সব মিলিয়ে নির্বাচনের দিন খন ঠিক না হলেও জমে উঠেছে নির্বাচনের আমেজ প্রার্থীদের মাঝে। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের টার্গেট নিয়ে পস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে ২০১৮ সালের অক্টোবর – নভেম্বর মাসের মধ্যে তফসিল ঘোষণা করে ডিসেম্বর মাসে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলো নতুন নতুন জোট গঠন এবং জনমনে বিপুল জল্পনা- কল্পনা শুরু হয়েগেছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীরা গণসংযোগ লবিং এবং জনমত প্রদর্শনসহ বিভিন্ন ভাবে নিজেদের অধিকতর যোগ্য প্রার্থী হিসেবে প্রমাণ করার প্রতিযোগিতায় নেমে পরেছে। ব্রাহ্মণবাড়ীয়া ২ ( সরাইল- আশুগঞ্জ) এর বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ আগামি একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে নিয়ে কি ভাবছেন তা জানার জন্য উক্ত আসনের কয়েকটি ইউনিয়ন সরজমিনে জনমত জরিপ কালে স্বাহ্মাৎ হয়ে যায় প্রধান রাজনৈতিক দলের আওয়ামিলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের কেন্দ্রীয় নেতা ও ঢাকা- বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বর্তমানে বাংলাদেশ আইন সমিতি সভাপতি এ্যাডঃ কামরুুজ্জামান আনসারি , সাথে তিনি বলেন ব্রাহ্মণবাড়ীয়া ২ ( সরাইল- আশুগঞ্জ) থেকে অর্ধ ডজনের ও বেশি নেতাকর্মী বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ থেকে সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী তাদের মধ্যে আমি ও বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। আমি আশাকরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামি একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে নৌকার প্রতীক উপহার দিবেন।