জাতীয় পার্টির ৩২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

জাতীয় পার্টি-জেপি’র ৩২ তম প্রতিষ্ঠাবাষির্কী আজ। ১৯৮৬ সালের এইদিনে দলটি প্রতিষ্ঠা হয়। দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় পার্টি-জেপি’র চেয়ারম্যান এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, এমপি এবং দলের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম জেপি’র সকল নেতাকর্মী ও দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

গতকাল রবিবার জেপি’র নেতৃদ্বয় এক বিবৃতিতে বলেন, ১৯৮৬ সালে সামরিক শাসন থেকে গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক ধারায় উত্তরণের লক্ষ্যে জাতীয় পার্টি-জেপি গঠিত হয়েছিল। আমরা সন্তোষের সঙ্গে উল্লেখ করতে চাই যে, জাতীয় পার্টি-জেপি’র সেদিনের ভূমিকার কারণে জাতি আজও সাংবিধানিক ধারা অব্যাহত রাখতে সমর্থ হয়েছে। জাতীয় পার্টি-জেপি’র এই সাফল্য দেশবাসীকে গণতান্ত্রিক ধারায় উজ্জীবিত রাখবে। ক্ষুধা, দারিদ্র, নিরক্ষরতা এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকতেও অনুপ্রাণিত করবে।

জাতীয় পার্টি-জেপি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গণতন্ত্রকে নিরঙ্কুশ করা এবং স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব সুদৃঢ় করে সাংবিধানিক গণতন্ত্রের ধারা, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংগ্রাম এবং সামাজিক ন্যায়বিচার কায়েমের শপথ গ্রহণের জন্য নেতৃদ্বয় দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। জেপি’র সকল নেতা-কর্মীসহ দেশবাসীর সুখ-শান্তি ও কল্যাণ কামনা করেন তারা। আগামী দিনে জনগণের কল্যাণমুখী রাজনীতি অব্যাহত রাখার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন জেপি’র চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক।

জাতীয় পার্টি-জেপি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সোমবার সকাল ৭টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সকল কর্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। জেপি চেয়ারম্যান এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জুর সভাপতিত্বে এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান। জেপি’র সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম সংশ্লিষ্টদের যথাসময়ে আলোচনা সভায় উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন।

নতুন বছর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা

জাতীয় পার্টি-জেপি’র চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এবং দলের সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম ইংরেজি নতুন বছর ২০১৮ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে জেপি’র নেতৃদ্বয় বলেন, আমরা আশা করি ২০১৮ সাল আমাদের জাতির সকলের জীবনে সুখ-সমৃদ্ধি ও কল্যাণ বয়ে আনবে। ২০১৮ সাল জাতির জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ বছরও বটে। এই বছরের শেষদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। এই নির্বাচন জাতির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ গণতান্ত্রিক পদক্ষেপ