ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারালেন মা

শ্রীপুর (গাজীপুর) সংবাদদাতা : গাজীপুরের শ্রীপুর উত্তরপাড়া গ্রামে ছেলেকে মারধরের হাত হতে রক্ষা করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের ধাক্কায় আহত হয়ে সুফিয়া আক্তার (৬০) নামে এক বৃদ্ধা মারা যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান বলে অভিযোগ করেছেন তার স্বজনরা।

সোমবার রাতে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

নিহত সুফিয়া শ্রীপুর পৌর এলাকার শ্রীপুর উত্তর গ্রামের রুস্তম আলীর স্ত্রী। সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের ছেলে আবু সাইদ জানান, বেশ দীর্ঘদিন ধরে তাদের সঙ্গে প্রতিবেশী স্বজন বাচ্চু ও তার ভাইদের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে সোমবার রাতে বাচ্চু ও তার ভাইদের সঙ্গে তাদের বাকবিতণ্ডা বাধে। এক পর্যায়ে সাইদকে মারধর শুরু করলে মা সুফিয়া খাতুন তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেন।

এসময় উভয় পক্ষের ধাক্কাধাক্কিতে সুফিয়া খাতুন মাটিতে পড়ে আহত হন। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত্যুর বিষয়ে বাচ্চু ও তাঁর পরিবারের কাউকে না পাওয়ায় তাদের বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। তাঁর মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মফিজুর রহমান মল্লিক জানান, নিহতের স্বজনরা মারধরের অভিযোগ করায় লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে মামলাসহ পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারজানা শারমিন জানান, হাসপাতালে আনার আগেই সুফিয়া খাতুনের মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না।