চুয়াডাঙ্গায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুর, আটক ১

হাবিবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা সংখ্যালঘু হরিজন সম্প্রদায়ের মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার রাত ১১ টায় শহরের মুক্তিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাতেই অভিযুক্ত লিটন নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।লিটন শহরের মুক্তিপাড়ার মৃত মোহম্মদ শেখের ছেলে।
পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার ছিল হিন্দু সম্প্রদায়ের কালি পূজা উৎসব। হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন শনিবার রাতে মন্দির বন্ধ করে বাসায় গেলে লিটন মদ্যপ অবস্থায় মন্দিরে ঢুকে প্রতিমা ভাংচুর করে। পরে পুলিশ তাকে ঘটনাস্থল থেকে মদ্যপ অবস্থায আটক করে।
বাংলাদেশ হরিজন মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি গকুল সর্দ্দার ভুইমালি বলেন প্রতিবছর আমারা এই কালিমাতা পূজা করে থাকি। রাতে মন্দিরের আরতি শেষে বাসায় ঢুকলে লিটন মন্দিরে ঢুকে প্রতিমা ভেঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় এলাকার লোকজন তাকে হাতেনাতে আটক করে।প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় অভিযুক্ত লিটনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে হরিজন সম্প্রদায়ের লোকজন।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মন্দিরের সভাপতি গকুল সর্দ্দার বাদী হয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। আসামী লিটনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।

Inline
Inline