চুয়াডাঙ্গার ১৭টি ইউনিটে তুলা চাষ করে চাষীরা লাভবান হচ্ছে

হাবিবুর রহমান,চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ চুয়াডাঙ্গার ১৭টি ইউনিটে তুলা চাষ করে চাষীরা লাভবান হচ্ছে। সুষ্ঠু বাজারজাতকরণ ব্যবস্থা তৈরী ও হাইব্রিড তুলা বীজের দাম কমলে চাষীরা তুলা চাষে আরো উদ্বুদ্ধ হবে।
চুয়াডাঙ্গার পৌর এলাকার বেলগাছী গ্রামের মরহুম ওমর আলীর ছেলে তুলা চাষী আব্দুল গনি মন্ডল জানান, তিনি এবার ৩ বিঘা ১৩ শতক জমিতে তুলা চাষ করেছে। এ চাষে সব মিলিয়ে তার খরচ হয়েছে ৪০ হাজার টাকা। তিনি আশা করেন তার জমিতে ৫৩-৫৪ মন তুলা উৎপাদন হবে। ২ হাজার ১০০ টাকা মন দরে বিক্রি করলে এক মৌসুমে খরচ বাদে তার লাভ হবে ৭৩ হাজার ৪০০ টাকা।
চুয়াডাঙ্গার পৌর এলাকার বেলগাছী দক্ষিনপাড়ার আব্দুল মোতালেবের ছেলে তুলা চাষী রমজান আলী জানান, তুলা উন্নয়ন বোর্ডের সহযোগীতায় তারা তুলা চায় করায় তাদের তুলা উৎপাদন ভাল হয়েছে। এ মৌসুমে তুলার বাম্পার উৎপাদন হয়েছে। তুলার দাম ভাল পাওয়ায় আসছে মৌসুমে চাষীরা আরো বেশী তুলা চাষ করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার বেলগাছী দক্ষিনপাড়ার রফিউদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে তুলা চাষী আনিসুর রহমান জানান, তিনি ৫ কাঠা জমিতে ৩ হাজার টাকা খরচ করে তুলা চাষ করেন। সেখানে উৎপাদিত তুলা বিক্রি করে তার ৭ হাজার টাকা লাভ হয়েছে।
ইস্পাহানী এগ্রো লিমিটেডের ইউনিট ব্যবস্থাপক কিবরিয়া বলেন, তারা এ মৌসুমে চুয়াডাঙ্গার ৪টি ও কুষ্টিয়ার ২টি ইউনিটে ৩০০ বিঘা জমিতে চাষীদের বিনা সুদে ঋন, বিষ, বীজ ও সার দিয়ে তুলা চাষ করিয়েছেন। চাষীদের উৎপাদিত তুলা সরকার নির্ধারিত দামে তারা কিনে নেবে। এভাবেই তারা তুলা চাষকে এগিয়ে নিচ্ছে।
চুয়াডাঙ্গার প্রধান তুলা উন্নয়ন কর্মকর্তা খোন্দকার এনামুল কবীর জানান, এ মৌসুমে ৪৫০ জন চাষীকে বিনা মূল্যে সরকারি উপকরণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবার তুলা চায় ভাল হয়েছে। এবার চাষীরা প্রতি মন তুলার দাম ১৮০ টাকা বেশী পাচ্ছে। গত মৌসুমে তুলার দাম প্রতি মন ছিলো ১ হাজার ৯২০ টাকা এবার দাম বেড়ে হয়েছে ২ হাজার ১০০ টাকা। সুষ্ঠু বাজারজাতকরণ ব্যবস্থা তৈরী ও হাইব্রিড বীজের দাম কমালে চাষীরা আরো আগ্রহী হয়ে তুলা চাষ করবে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন। তিনি আরো জানান, চুয়াডাঙ্গার ১২টি ও মেহেরপুরের ৫টি নিয়ে মোট ১৭টি ইউনিটের অধীনে চলতি মৌসুমে চাষীরা ৩ হাজার ৯৫০ হেক্টর জমিতে তুলা চাষ করেছে। এ মৌসুমে তুলা চাষের লক্ষ মাত্রা ছিলো ৪ হাজার ১০০ হেক্টর। এবার ১১ হাজার ৮৪০ জন চাষী ২২ হাজার বেল তুলা উৎপাদন করবে। গত মৌসুমে প্রতি মন তুলার দাম ছিলো ১ হাজার ৯২০ টাকা, এবার তা বেড়ে দাাঁড়িয়েছে হয়েছে ২ হাজার ১০০ টাকা।
তুলা চাষে আরো আগ্রহী করে তুলতে তুলা উন্নয়ন বোর্ড থেকে চাষীদের উদ্বুদ্ধকরণ ব্যবস্থা আরো জোরদার করার আহবান জানিয়েছে বেসরকারি তুলা ক্রেতা প্রতিষ্ঠান।