চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

হাবিবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে জনাব আলী নামে এক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য। রোববার দিনগত রাত ২টার দিকে জীবননগর উপজেলার উথলী গ্রামের সন্যাসীতলা মাঠের কাছে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, তিনটি রামদা ও এক বস্তা ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত জনাব আলী (৩২) উথলী গ্রামের আমতলা পাড়ার জামাত আলীর ছেলে। নিহতের মরদেহ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, রোববার রাতে জীবননগর থানা পুলিশের একটি টহল দল উপজেলার উথলী গ্রামের সন্যাসীতলা সড়কে টহল দিচ্ছিল। এসময় ১০-১২ জন মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বেপরোয়া গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় ১ ঘন্টা গুলি বিনিময়ের এক পর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়। পরে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী জনাব আলীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন জীবননগর থানার তিন পুলিশ সদস্য। আহতরা হলেন- সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মিলন হোসেন, কনেস্টেবল ওয়ালিদ রহমান ও জুয়েল হোসেন। আহত পুলিশ সদস্যদেরকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ রহমান জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, তিনটি রামদা ও এক বস্তা ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত জনাব আলীর বিরুদ্ধে জীবননগর থানাসহ পার্শ্ববর্তী থানায় অন্তত ১১টি মাদকের মামলা রয়েছে বলেও জানান তিনি।