চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের ‘ক্রসফায়ারে’ ডাকাতদলের প্রধান নিহত

হাবিবুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের সঙ্গে ‘ক্রসফায়ারে’ আন্তঃজেলা ডাকাতদলের প্রধান ইমান আলী (৪৫) নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার আনুমানিক দিনগত রাত ২টার দিকে জেলার জীবননগরের উথলী ইউনিয়নের সন্তোষপুর-আন্দুলবাড়ীয়া রাস্তায় এ ‘ক্রসফায়ারের ঘটনাটি ঘটে। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি, বোমা ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে। নিহত ইমান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের হাটচাঁদপুর গ্রামের ফকর আলী ব্যাপারীর ছেলে। সে আন্তঃজেলা ডাকাতদল চক্রের প্রধান এবং শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বোমাবাজী, চাঁদাবাজী, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গার সহকারি পুলিশ সুপার আহসান হাবীব পিপিএম জানান, জীবননগর উপজেলার সন্তোষপুর-আন্দুলবাড়ীয়া রাস্তার একটি আমবাগানে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে গোপন সংবাদে ভিতিত্বে জানতে পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালালে পুলিশকে লক্ষ্য করে তারা কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। পুলিশ তাদের নিবৃত করতে পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। ওই গুলিতে ‘ক্রসফায়ারে’ পড়ে ডাকাত নেতা ইমান আলী গুলিবিদ্ধ হয়। পরিস্থিতি শান্ত হলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ইমান আলীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এবং সেখানে পড়ে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি, বোমা ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করে। ইমান আলীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। রাতেই লাশটি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর এবং সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা করা হবে বলেও তিনি জানান।