চার হাজার শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিল ডাচ–বাংলা ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেসরকারি ব্যাংক ডাচ-বাংলা ১০২ কোটি টাকার শিক্ষাবৃত্তি কর্মসূচির আওতায় এবার চার হাজার ৩২ জন গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে।শনিবার দুপুরে মিরপুরের শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের বৃত্তির টাকা দেয়া হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, আমাকে শ্রেষ্ঠ হতে হবে যদি এ সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকো তাহলে তোমাদের কখনো ব্যর্থ হতে হবে না। ব্রত হতে হবে- যে পেশাই থাকি না কেন, যেখানেই কাজ করি না কেন নিজেকে শ্রেষ্ঠ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আল্লাহ মানুষকে আশরাফুল মাখলুকাত বলেছেন। আশরাফ মানে সর্বোত্তম। এই সর্বোত্তম গুণের অধিকারী আমরা জন্ম থেকে হই না। রুচির বিকাশ করে, জ্ঞান আহরণ করে আশরাফের সম্মান অর্জন করতে হয়। আশরাফুল মাখলুকাত নিজের চেষ্টায় হতে হয়।’ডাচ বাংলা ব্যাংকের শিক্ষা বৃত্তিকে একটা আর্দশ স্থাপন করেছে মন্তব্য করে অর্থমন্ত্রী বলেন, এটা একটা দৃষ্টান্ত। তারা তাদের লভ্যাংশ শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও দুর্যোগসহ অন্যান্য জনহিতকর কাজে ব্যয় করে। অন্যদেরও এভাবে এগিয়ে আসা উচিত।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, ডাচ বাংলা ব্যাংকের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদ প্রমুখ।ব্যাংকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বৃত্তিপ্রাপ্তরা উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের পূর্ণ শিক্ষাবর্ষে মাসে দুই হাজার টাকা করে পাবে। আর পাঠ্য উপকরণের জন্য আড়াই হাজার টাকা এবং পোশাক-পরিচ্ছদের জন্য এক হাজার টাকা করে বার্ষিক অনুদান পাবে।