চান্দগাঁও আবাসিক জামে মসজিদে ঈদুল আযহায় রোগমুক্ত সুস্থ প্রাণি নিশ্চিতে প্রচারাভিযান সম্পন্ন!

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে সুস্থ, রোগমুক্ত পশু নিশ্চিত করা, কৃত্রিমভাবে গরু মোটাতাজাকরণ রোধে ভোক্তা পর্যায়ে করনীয় বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি কল্পে প্রচারণা কর্মসুচি চান্দগাঁও আসাসিক জামে মসজদি কমপ্লেক্স এলাকায় সম্পন্ন করেন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ(ক্যাব) চট্টগ্রাম ও জেলা প্রাণী সম্পদ কার্যালয়।
বুধবার (১৫ আগষ্ট) বিকালে নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে এ প্রচারণা কর্মসুচি পরিচালনা করা হয়। প্রচারণা কর্মসুচি পরিচালনা উপলক্ষে অন্যান্যদের মধ্যে ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান, সাবেক অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ কমপ্লেক্স এর সভাপতি নুরুল আমিন, চান্দগাঁও আবাসিক কল্যান সমিতির সহ-সভাপতি ইউসুফ সিকদার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফজলে আহাদ, সদস্য নুরুল আমিন, এনামুল হাসান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ ইসমাইল, সিজল’র পার্টনার শিল্পপতি নুরুল আলম, বোয়ালখালী সমিতির আহবায়ক রফিক আহমদ, মওলানা নোমান ফারুকী, ক্যাব নেতা অধ্যাপক শাহনেওয়াজ আলী মির্জা, জানে আলম, সেলিম জাহাঙ্গীর, সেলিম সাজ্জাদ, ক্যাব আইবিপি পোল্ট্রি প্রজেক্ট মাঠ সমন্বয়কারী মশিউর রহমান, সাংবাদিক নিজামউদ্দীন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
পরে ক্যাব প্রতিনিধি দল চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা মসজিদ কমপ্লেক্সে আগত মুসল্লীদের মাঝে জেলা প্রাণি সম্পদ কার্যালয় ও ক্যাব কর্তৃক প্রণীত লিফলেট বিতরন করেন এবং মসজিদ কমপ্লেক্স এলাকায় দর্শনীয় স্থানে ব্যানার প্রতিস্থাপন করেন। এ উপলক্ষে অনুষ্ঠানে ক্যাব নেতৃবৃন্দ বলেন, কোরবানীর গরুর বাজারে যেন ক্রেতারা প্রতারিত না হয় সেজন্য প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালত ও প্রাণি সম্পদ অফিসের ভ্রাম্যমান টিম নিয়োজিত থাকবে। যেখানে অতি সহজে রোগাক্রান্ত ও কৃত্রিমভাবে মোটাতাজাকরণ গরু সনাক্ত করা যাবে। ক্রেতারা প্রযোজনে জেলা প্রাণি সম্পদ কার্যালয়ের হটলাইন নং ০৩১-৬৫৯০৭৬, ০১৮৫৯২৫৫১৫১, ০১৭২০৮৮২২৮২ এই নাম্বার অথবা www.facebook: CABdhaka, Consumers Association of Bangladesh-CAB/ক্যাব চট্টগ্রাম এই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে পারবেন।
উল্লেখ্য, ক্যাব ও জেলা প্রাণি সম্পদ কার্যালয় চট্টগ্রাম, জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের যৌথ উদ্যোগে কোরবানীর হাটে ক্রেতা হয়রানি রোধ, রোগমুক্ত গবাদি পশু নিশ্চিতকরণ, কৃত্রিমভাবে গরু মোটাতাজাকরণ সনাক্ত করণে নগরীর ৮টি গরুর বাজার ও নগরীর বাইরে ২টি বাজারে প্রচারপত্র বিলি, ব্যানার স্থাপন, ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা, গরুর বাজারে সার্বক্ষনিক ভাবে ভ্যাটেরিনারী সার্জন উপস্থিতি ও জরুরী প্রয়োজনে হটলাইন সেবা প্রদানের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।(খবর বিজ্ঞপ্তি)