চাকরির নামে প্রতারণা : গ্রেফতার ৯ জন রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভুয়া সচিব-কর্নেল পরিচয়ে চাকরির নামে প্রতারণার অভিযোগে করা মামলায় গ্রেফতার ৯ জনকে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম মোরশেদ আল মামুন ভূঁইয়া এ রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের মতিঝিল থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জালাল উদ্দিন। তিনি বলেন, চাকরির নামে প্রতারণার অভিযোগে রাজধানীর মতিঝিল থানায় করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য বুধবার তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। শুনানি শেষে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে গত বুধবার রাজধানীর মতিঝিল থেকে প্রতারকচক্রের ৯ সদস্যকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। তারা কেউ লেফটেন্যান্ট কর্নেল, কেউ সচিব, কেউবা জাতীয় মানবাধিকার সংস্থার সদস্য পরিচয় ব্যবহার করে চাকরি দেয়ার নামে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

র‌্যাব-১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মো. আশরাফুল হকের নেতৃত্বে এবং স্কোয়াড কমান্ডার এএসপি মো. শাহীনুর চৌধুরী ও এএসপি মো. শহীদুল হক মুন্সীর সমন্বয়ে একটি দল মতিঝিল এলাকা তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন- তারিকুল ইসলাম ওরফে তারেক (৪০), রবিউল করিম ওরফে ডলার (৪২), এমএম রবিউল আউয়াল (৩৯), মিজানুর রহমান ওরফে বাদশা (৪০), হাফিজুর রহমান (৪৬), মাসুদুল হক (৬৫), আব্দুল হান্নান (৩১), মো. রাসেল (২৬) ও একজন কিশোর।

তাদের কাছ থেকে একাধিক সিপিইউ, মনিটর, প্রিন্টার, স্কানার, সিল তৈরির মেশিন, ভুয়া নিয়োগপত্র ২৫টি, ব্যাংক নিয়োগপত্র ৯৪টি, ব্যাংক চেক ৫টি, ব্যাংক স্ট্যাম্প, সরকারি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের সিল ১০০টি, মোবাইলফোন ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়।

মেজর মো. আশরাফুল হক বলেন, গ্রেফতাররা ভুয়া লেফটেন্যান্ট কর্নেল, সচিব ও জাতীয় মানবাধিকার সংস্থার সদস্য সেজে অসংখ্য চাকরিপ্রত্যাশীকে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিভিন্ন সরকারি সংস্থা/প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেয়ার নামে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে আসছিল।

এ চক্রটি নিরীহ চাকরিপ্রত্যাশীদের সঙ্গে সাক্ষাৎকার নেয়ার নাটক করে চাকরির নিশ্চয়তা দিয়ে বিশ্বাস অর্জনের জন্য নকল নিয়োগপত্র তৈরি করে সরবরাহ করত। নিয়োগপত্র দেয়ার পর চাকরিপ্রত্যাশীরা তাদের নিয়োগস্থলে কাজে যোগদান করতে গিয়ে প্রতারণার বিষয়টি নিশ্চিত হয়, হয় সর্বস্বান্ত।