চাকরিতে প্রবেশের বয়স বৃদ্ধির দাবিতে মশাল মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ বছর করার দাবিতে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ’ এর ব্যানারে মশাল মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা।

শুক্রবার রাজধানীর শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে এ মিছিলটি শুরু হয়। পরে মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে আবারও শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়।

বর্তমানে দেশে সরকারি চাকরিতে আবেদন করা যায় ৩০ বছর পর্যন্ত। এটিকে ৩৫ করার দাবিতে গত কয়েক বছর ধরেই এই সংগঠনটি নানা কর্মসূচি পালন করে আসছে। তবে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়ে দিয়েছেন, বয়সসীমা বাড়াতে সরকারের কোনো পরিকল্পনা নেই।

তবে সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারে সরকারের পরিকল্পনা না থাকলেও শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত ১২ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী সংসদে চাকরিতে কোটা থাকবে না বলে জানান। গত ২ মে গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আবারও সে অবস্থানের কথা জানান। বলেছেন, যে ঘোষণা তিনি দিয়েছেন, সেটি পাল্টানোর সুযোগ নেই।
সরকারের এই সিদ্ধান্তের পর চাকরির বয়স সীমা বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনকারীরাও তাদের দাবি মেনে নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন।

মশাল মিছিলে আন্দোলনকারীদের সমন্বয়ক আল আমিন বলেন,‌ ‌’বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু যখন ৪৫ বছর ছিল, তখন চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ছিল ২৭ বছর। এটি যখন ৫০ ছাড়ল, তখন প্রবেশের সময়সীমা ৩০ করা হলো। বর্তমানে দেশের গড় আয়ু যখন ৭২ হলেও বয়সসীমা অপরিবর্তিত রয়ে গেছে। তাই অবিলম্বে চাকরির প্রবেশের বয়সসসীমা ৩৫ করতে হবে।’

দাবি আদায়ে শাহবাগের এই কর্মসূচি থেকে শনিবার বেলা ১১টায় প্রতীকী কফিন মিছিল বের করার কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়।