চাঁদপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফিক্সার প্রকাশনী

এম এম কামাল, চাঁদপুর থেকে : চাঁদপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে অায়োজিত জাতীয় এই ফুটবল টুর্নামেন্টে অামি কোন ত্রুটি দেখতে চাই না। এই খেলায় ক্রীড়া প্রেমীদের সম্পৃক্তকরণ বাড়াতে হবে। এছাড়াও খেলার শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ডেকোরেশনের সাজসজ্জা ও দর্শক সম্পৃক্তকরণ ব্যপারেও নজর গুরুত্ব দিতে হবে।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট(অনুর্ধ্ব-১৭)”এর জেলা পর্যায়ের খেলা অায়োজনের প্রস্তুতি সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব মন্তব্য করেন। এ সময় তিনি অারো বলেন, এ বারের খেলা দেখতে যেসব দর্শকরা মাঠে অাসবে তাদের জন্যও পুরুষ্কার রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। এই খেলাকে অামাদের মিডিয়া ভাইদের সহযোগিতায় সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘এই বছর এই বঙ্গবন্ধুর টুর্নামেন্টটি ছেলেদের অংশগ্রহনে হলেও অাগামী বছর থেকে এটাতে মেয়েদের অংশ গ্রহনে অালাদা করে টুর্নামেন্টের অায়োজন করারও পরিকল্পনা রয়েছে। খেলাকে সাফল্য মন্ডিত করতে অামি সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামন করছি।’

জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) জাহাঙ্গীর হোসেনের পরিচালনায় এই টুর্নামেন্ট অায়োজনের প্রস্তুতি সভায় অারো বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ ও প্রশাসন) মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(শিক্ষা ও অাইসিটি) মোঃ মঈনুল হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, চাঁদপুর প্রেস ক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট মারুফা সুলতানা খান হীরামনি, নাজনীন সুলতানা, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু, ফুটবল টুর্নামেন্টের অায়োজনের উপ-কমিটির সম্পাদক সাহির হোসেন পাটোয়ারী, জেলা স্কাউট কমান্ডার অজয় ভৌমিক প্রমুখ।

পরে জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) জাহাঙ্গীর হোসেন ১৬ থেকে ২২ তারিখের মধ্যে খেলার অায়োজনের ফিক্সচার জেলা প্রশাসক ও অনুষ্ঠান সভাপতির কাছে হস্তান্তর করেন।

ফিক্সারে দেখা যায়, খেলার নির্ধারিত ভেন্যু চাঁদপুর স্টেডিয়ামকে নির্ধারণ করা হয়েছে। এখানে ১৬ সেপ্টেম্বর ১ম পর্বের খেলায় গ্রুপ-এ এর খেলায় ১১টায় মুখমুখি হবে সদর পৌরসভা এবং সদর উপজেলা। ১৭ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টা ৪০মিনিটে ২য় পর্বের এ-১ এর খেলায় কচুয়া উপজেলার মুখোমুখি হবে মতলব(দঃ) উপজেলা। একই দিন এ-২ এর খেলায় বিকাল ৪টা ২০মিনিটে ফরিদগঞ্জ উপজেলার মুখোমুখি হবে হাইমচর উপজেলা।

পরদিন ১৮ সেপ্টেম্বর এ-৩ এর খেলায় হাজিগঞ্জ উপজেলার মুখোমুখি হবে শাহারাস্তি উপজেলা। একই দিন বিকাল ৪টা ২০মিনিটে এ-৪ এর খেলায় মতলব(উঃ) উপজেলার মুখোমুখি হবে ম্যাচ-এ বিজয়ী।

১৯ সেপ্টেম্বর এ-৫ এর খেলায় দুপুর ২টা ৪০মিনিটে ৩য় পর্বের সেমিফাইনাল খেলায় ম্যাচ এ-১ বিজয়ীর মুখোমুখি হবে ম্যাচ এ-২ বিজয়ী। একই দিন বিকাল ৪টা ২০মিনিটে এ-৬ এর খেলায় ম্যাচ এ-৩ বিজয়ীর মুখোমুখি হবে ম্যাচ এ-৪ এর বিজয়ী।

নকাউট পর্বের এ টুর্নামেন্টের ফাইনাল ২২ সেপ্টেম্বর ম্যাচ এ-৫ বিজয়ী এবং ম্যাচ এ-৬ বিজয়ীর মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। এবারের খেলায় সর্বমোট ব্যায় নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় ৩ লক্ষ ৮৭ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য, এই খেলায় অংশ নিয়ে যেসব খেলোয়াড় ভালো খেলবেন তাদের নিয়ে জেলা পর্যায়ের ১৮ সদস্যের দল বাছাই করা হবে।