চাঁদপুরে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে উপচে পরা ভিড়

এম এম কামাল, চাঁদপুর থেকে : ‘উন্নয়নের অভিযাত্রায় অদম্য বাংলাদেশ’ শ্লোগানে চলছে ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা-২০১৮। তিন দিনের ২য় দিনে এই মেলায় শুক্রবার (০৫ অক্টোবর) সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা গেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) চাঁদপুর অফিসের স্টলে।

স্বল্প সময়ে ড্রাইভিং লাইসেন্স ও মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশনের জন্যই মানুষ ভিড় করছেন স্টলটিতে।

মেলায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ(বিআরটিএ) চাঁদপুর সার্কেলের স্টলে দেয়া হচ্ছে ড্রাইভিং লাইসেন্স, নাম্বার প্লেট, স্মার্ট কার্ড, শিক্ষানবিশ ড্রাইভিং লাইসেন্স, ডিজিটাল রেজিস্টেশন সার্টিফিকেট এবং মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনসহ বিভিন্ন সেবা।

বিআরটিএ সহকারি পরিচালক শেখ মোহাম্মদ ইমরান বলেন, ‘সব কাগজপত্র সঠিকভাবে জমা দিলেই শিক্ষানবিশ ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশনও করা যাচ্ছে এখানে।’

মোটরসাইকেলের ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে বন্ধুদের সঙ্গে উন্নয়ন মেলায় এসেছেন এক কলেজ শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেন। তিনি বলেন, ‘জেনে ছিলাম উন্নয়ন মেলায় ড্রাইভিং লাইসেন্স করা যাচ্ছে। তাই তাৎক্ষণিক সহজ উপায়ে লার্নার লাইসেন্স করতে এই উন্নয়ন মেলায় এসেছি। বৃহস্পতিবার ফরম নিয়েছিলাম, আজ (শুক্রবার) জমা দিয়ে ১ ঘণ্টার মধ্যেই লাইসেন্স পেয়ে গেলাম। ড্রাইভিং লাইসেন্স সহজে পাওয়ার তথ্য জানতে দর্শনার্থীরা এসব স্টলেই বেশি ভিড় করছেন।’

বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের পদচারণায় মুখরিত উন্নয়ন মেলার স্থল চাঁদপুর স্টেডিয়াম মেলার মাঠ। সকাল থেকেই দর্শনার্থীরা মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশ করে বিআরটিএসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্টল গিয়ে উন্নয়নের তথ্য, বিভিন্ন সেবা গ্রহণের তথ্য জেনে নিচ্ছিলেন।

চাঁদপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবারের বিভিন্ন দপ্তরের মেলায় ১২৩টি স্টল রয়েছে। যেখান থেকে জনগণ সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে পারছেন।

Inline
Inline