চলতি অর্থবছরে ৩,৯৮২ কোটি টাকার মৎস্য রপ্তানি করা হয়েছে : মৎস্য মন্ত্রী

সংসদ ভবন, ২৪ জুন, ২০১৮ : মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র বলেছেন, চলতি অর্থবছরের মে পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন দেশে প্রায় ৩ হাজার ৯৮২ কোটি টাকা মূল্যের প্রায় ৬৩ হাজার ৭৩৪ মেট্রিক টন মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্য রপ্তানি করা হয়েছে।
তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের মাহফুজুর রহমানের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থবছরের মে পর্যন্ত বিদেশে থেকে বাংলাদেশ প্রায় ২১৫ কোটি টাকা মূল্যের প্রায় ৪২ হাজার ৭১১ মেট্রিক টন মৎস্য আমদানি করেছে।
সরকারি দলের আনোয়ারুল আজীম (আনার)-এর অপর এক প্রশ্নের জবাবে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী বলেন, মৎস্য সম্পদ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়াধীন মৎস্য অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট উল্লেখযোগ্য পরিকল্পনা ও প্রকল্প গ্রহণ করে তা বাস্তবায়ন করছে।
তিনি বলেন, চলতি অর্থবছরে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়াধীন মৎস্য অধিদপ্তরের আওতায় বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ মেরিন-ফিশারিজ ক্যাপাসিটি বিল্ডিং প্রকল্প নিয়েছে। গোপালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও সিরাজগঞ্জ জেলায় মৎস্য ডিপ্লোমা ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।
নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেন, মানসম্মত মৎস্য বীজ ও পোনা উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মৎস্য স্থাপনা পুনর্বাসন ও উন্নয়ন প্রকল্প, সাসটেইনেবল কোস্টাল এন্ড মেরিন ফিশারিজ প্রজেক্ট ইন বাংলাদেশ, স্বাদু পানির চিংড়ি চাষ সম্প্রসার প্রকল্প (২য় পর্যায়), রংপুর বিভাগে মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্প, বৃহত্তর যশোর জেলায় মৎস্য চাষ উন্নয়ন প্রকল্প, ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসার প্রকল্প (২য় পর্যায়), বৃহত্তর কুমিল্লা জেলায় মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্প ও জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।
মন্ত্রী বলেন, ১৮টি প্রকল্প বাস্তবায়নে চলতি অর্থবছরে ৩৪৯ কোটি ৬১ লাখ টাকা বরাদ্দ রয়েছে।
তিনি বলেন, মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

Inline
Inline